ব্রেকিং নিউজ
Home | আন্তর্জাতিক | জামায়াত নেতার মেয়েকে গ্রেপ্তার করায় নিন্দা

জামায়াত নেতার মেয়েকে গ্রেপ্তার করায় নিন্দা

স্টাফ রিপোর্টার, ২৪ মার্চ, বিডিটুডে ২৪ডটকম : রাজশাহী মহানগরীর আমির আতাউর রহমানের মেয়ে জাকিয়া ফারহানাকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে জামায়াতের ইসলামী। একই সঙ্গে মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত জামায়াতের সাবেক আমির গোলাম আযমের ভাইয়ের মৃত্যুতে প্যারোল না দেয়ায় প্রতিবাদ জানিয়েছে দলটি। শনিবার এক বিবৃতিতে দলটির ভারপ্রাপ্ত আমির মকবুল আহমাদ এ প্রতিবাদ জানান।

বিবৃতিতে তিনি অভিযোগ করেন করেন, রাজশাহী মহানগরী আমির আতাউর রহমান বেশ কিছুদিন যাবৎ কারাগারে বন্দী। তিনি চিকিৎসার জন্য রাজশাহী থেকে ঢাকায় আসতেছিলেন। আসার পথে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি কল্যাণপুর বাসষ্টান্ড থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে মিথ্যা মামলা দিয়ে সরকার কারাগারে পাঠায়। তিনি ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও হৃদরোগে ভুগতেছেন। তার প্রয়োজনীয় ঔষধ সরবরাহের জন্য তার মেয়ে জাকিয়া ফারহানা শনিবার কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে বাবার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যান। ঔষধপত্র প্রদান শেষে প্রত্যাবর্তনের সময় সরকার তাকে গ্রেপ্তার করে। তিনি অভিযোগ করেন,  ‘একজন বন্দী রাজনৈতিক নেতার কন্যাকে গ্রেপ্তার করা সম্পূর্ণ অমানবিক ও মানবাধিকারের সুস্পষ্ট লংঘন।’

বিবৃতিতে বলা হয়,  ‘ডা. জাকিয়া ফারহানা এক শিশু সন্তানের মা। শিশুটির বয়স এক বছর। শিশুটিকে মায়ের বুকের দুধ খেয়ে বেঁচে থাকতে হয়। এমতাবস্থায় সরকার ডা. জাকিয়া ফারহানাকে গ্রেপ্তার করে ঐ শিশুটির মাতৃ অধিকারের উপর আঘাত করেছে। এটা নারী শিশু আইনের সুস্পষ্ট লংঘন। ডা. জাকিয়া ফারহানাকে গ্রেপ্তারের মাধ্যমে সরকার শিশুটিকে মায়ের সাহচার্য থেকে বঞ্চিত করে সম্পূর্ণ অন্যায় ও গর্হিত কাজ করেছে। সরকারের স্বৈরাচারী আচরণের হাত থেকে শিশু, নারী, বৃদ্ধ কেউই নিরাপদ নয়। আমি সরকারের আমানবিক কর্মকা-ের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে ডা. জাকিয়া ফারহানার মুক্তি দাবি করছি এবং দেশবাসীকে মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী এ স্বৈরাচারী সরকারের বিরুদ্ধে চলমান গণআন্দোলন আরো বেগবান করার আহ্বান জানাচ্ছি।’

অপর এক বিবৃতিতে মানবতাবিরোধী অপরাধে আটক জামায়াতের সাবেক আমির গোলাম আযমকে জানাযায় অংশগ্রহণের জন্য প্যারোলে মুক্তি না দেয়ার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায় জামায়াত। বিবৃতিতে মকবুল আহমাদ বলেন, ‘বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমির অধ্যাপক গোলাম আযমের ছোট ভাই ইঞ্জিনিয়ার প্রফেসর ড. মাহদি উজ্জামান (৭৭) গত ২০ মার্চ ২০১৩ তারিখে ইন্তেকাল করেন। ২৩ মার্চ ভাইয়ের জানাযায় অংশগ্রহণের জন্য সরকারের নিকট অধ্যাপক গোলাম আযমের প্যারোলে মুক্তি চেয়ে আবেদন জানানো হয়। কিন্ত সরকার কোন কারন ছাড়াই প্যারোলে মুক্তি না দিয়ে গোলাম আযমকে ভাইয়ের জানাযায় অংশগ্রহণের সুযোগ থেকে বঞ্চিত করেছেন। একটি মুসলিম দেশে আপন ভাইয়ের জানাযায় অংশগ্রহণ থেকে বঞ্চিত করা সম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিত, অনৈতিক, অনভিপ্রেত ও অনাকাঙ্খিত এবং মানবাধিকারের চরম লংঘন। আমরা  সরকারের এ ফ্যাসিবাদী আচরণের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।’

x

Check Also

‘গ্রেটার সিলেট এসোসিয়েশন ইন স্পেন’ নির্বাচনে মুজাক্কির – সেলিম প্যানেল বিজয়ী

জিয়াউল হক জুমন, স্পেন প্রতিনিধিঃ সিলেট বিভাগের চারটি জেলা নিয়ে গঠিত গ্রেটার ...

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভা

আনোয়ার এইচ খান ফাহিম ইউরোপীয় ব্যুরো প্রধান, পর্তুগালঃ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার ...