ব্রেকিং নিউজ
Home | ফটো সংবাদ | জাতীয় নেতা মশিউর রহমান যাদু মিয়ার ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

জাতীয় নেতা মশিউর রহমান যাদু মিয়ার ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

Jaduস্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ) প্রাক্তন চেয়ারম্যান ও সাবেক সিনিয়র মন্ত্রী জাতীয় নেতা মশিউর রহমান যাদু মিয়ার ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী এই মানুষটি ১৯৭৯ সালের ১২ মার্চ ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ন্যাপসহ বিভিন্ন সংগঠন নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। মশিউর রহমান যাদু মিয়া চল্লিশ দশকের শেষের দিকে ‘ইয়াং ম্যান এসোসিয়েশন অব পাকিস্তান’র (পূর্ব পাকিস্তান শাখা) প্রধান ছিলেন। পঞ্চাশ দশকের শেষ দিকে রংপুর জেলা বোর্ডের কনিষ্ঠতম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন তিনি। ১৯৫৭ সালে মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর আহ্বানে অনুষ্ঠিত ঐতিহাসিক কাগমারী সম্মেলনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন যাদু মিয়া। তিনি ১৯৬২ সালে পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন এবং জাতীয় পরিষদে বিরোধী দলের উপনেতা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। যাদু মিয়া পূর্ব পাকিস্তানের স্বায়ত্তশাসন অর্জনের জন্য পাকিস্তান জাতীয় পরিষদে বিরোধী দলের পক্ষে নেতৃত্ব প্রদান করেন এবং জাতীয় পরিষদে স্বায়ত্তশাসনের দাবি তুলে ধরেন। ১৯৬৩ সালে পাকিস্তান সরকারবিরোধী আন্দোলনের জন্য তাকে গ্রেফতার করা হয়। ১৯৬৬ সালে মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানীর আহ্বানে যে গণআন্দোলনের সূচনা হয়েছিল, সেখানেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন তিনি। ষাটের দশকের শেষের দিকে মশিউর রহমান যাদু মিয়া ‘ন্যাপ’-এর সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। এছাড়া তিনি আইয়ুব বিরোধী ১১ দফা আন্দোলনে জাতীয় পরিষদের ভেতরে ও বাইরে সোচ্চার ভূমিকা পালন করেন এবং মওলানা ভাসানীর আহ্বানে আন্দোলনের পক্ষে জাতীয় পরিষদের সদস্যপদ থেকে পদত্যাগ করেন। ১৯৬৯ সালে লায়েলপুরে কৃষক সম্মেলনে ইয়াহিয়া খানকে ‘গাদ্দার’ বলার কারণে যাদু মিয়াকে গ্রেফতার করা হয় এবং প্রহসনমূলক বিচারের মাধ্যমে তাকে সাত বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়। কিন্তু স্বল্প সময়ের মধ্যে পাকিস্তানের হাইকোর্ট তাকে মুক্তি দেন। স্বাধীনতা যুদ্ধের পূর্বমুহূর্তে ১৯৭১ সালের ২৩ মার্চ পল্টনে মওলানা ভাসানীর আহ্বানে অনুষ্ঠিত ঐতিহাসিক জনসভায় মশিউর রহমান যাদু মিয়া ন্যাপের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাধীনতার ঘোষণা পাঠ করেন। স্বাধীনতার পরে বাহাত্তর সালে গ্রেফতার হন যাদু মিয়া। এরপর তিয়াত্তর সালের শেষ দিকে মুক্তি পান তিনি। কিন্তু স্বল্প সময়ের ব্যবধানে যাদু মিয়াকে আবারো গ্রেফতার করা হয়। ১৯৭৫ সালের নভেম্বর মাসে কারামুক্ত হন তিনি। ১৯৭৬ সালে ভারতের পানি আগ্রাসন ও ফারাক্কা বাঁধের প্রতিবাদে মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানীর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত ঐতিহাসিক ফারাক্কা লং মার্চের সাংগঠনিক কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালনে করেন যাদু মিয়া। এছাড়া ১৯৭৭ সালে প্রগতিশীল, দেশপ্রেমিক ও জাতীয়তাবাদী শক্তির সমন্বয়ে প্রথমে ‘জাতীয়তাবাদী ফ্রন্ট’ ও পরবর্তীতে ‘জাতীয়তাবাদী দল’ গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ও ঐতিহাসিক ভূমিকা পালন করেন তিনি। মওলানা ভাসানীর মৃত্যুর পর ন্যাপ-এর চেয়ারম্যানের দায়িত্বও পালন করেন যাদু মিয়া। এছাড়া বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমানের অনুরোধে প্রধানমন্ত্রীর মর্যাদায় সিনিয়র মন্ত্রী (রেল মন্ত্রণালয়) হিসেবেও  দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

কর্মসূচি :

মশিউর রহমান যাদু মিয়ার ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দুই দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ন্যাপ। ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী, ১২ মার্চ বুধবার দুপুরে নয়া পল্টনের দলীয় মিলনায়তনে বাংলাদেশ ন্যাপ ঢাকা মহানগরের উদ্যোগে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া একই দিন নীলফামারী (ডোমার-ডিমলা), দিনাজপুর, পঞ্চগড়, নরসিংদী, নারায়ণগঞ্জ, সিলেট, মৌলভীবাজার, ঝিনাইদহ, কুষ্টিয়া, গাইবান্দা, রংপুর, ঠাকুরগাঁও, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ ও গাজীপুরসহ বিভিন্ন জেলায় আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। পরদিন বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে বাংলাদেশ ন্যাপের উদ্যোগে ‘গণতান্ত্রিক আন্দোলন ও মশিউর রহমান যাদু মিয়া’-শীর্ষক স্মারক আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমানের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

আলোকস্বল্পতার কারণে পরিত্যক্ত সিলেট -খুলনার ম্যাচটি

স্পোর্টস ডেস্ক :   গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি আর লাইভ সম্প্রচারে আলোকস্বল্পতার কারণে ...

ভিসা ছাড়াই যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের অনুমতি পাচ্ছেন ইসরাইলের নাগরিকরা

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ভিসা ছাড়াই যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের অনুমতি পাচ্ছেন ইসরাইলের নাগরিকরা। সোমবার ...