ব্রেকিং নিউজ
Home | সারা দেশ | ছাতকে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক, গুলিবিদ্ধ ৪

ছাতকে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক, গুলিবিদ্ধ ৪

ছাতক প্রতিনিধিঃ
ছাতকে বাড়ির সীমানা নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে পুলিশ, মহিলা ও শিশুসহ অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়েছে। গুলিবিদ্ধ গুরুতর আহত ৪জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের গনেশপুর গ্রামের সুহেল মাহমুদ ও হাজী মখলিছ আলী পক্ষদ্বয়ের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। দফায়-দফায় সংঘর্ষে উভয় পক্ষ ভাঙ্গা পাথর, কাঁচের বোতল, আগ্নেয়াস্ত্রসহ দেশীয় অস্ত্র ব্যবহার করে। সংঘর্ষ চলাকালে ৮-১০ রাউন্ড গুলি বর্ষনের শব্দ শুনা যায়। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা থেকে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত সংঘর্ষ চলাকালে এলাকায় এক বিভীশিকাময় পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। বৃষ্টির মতো ইট-পাটকেল নিক্ষেপের কারনে থানা-পুলিশকে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রনে আনতে হিমশিম খেতে হয়েছে। এ সময় পুলিশ ৬ রাউন্ড টিআরসেল নিক্ষেপ করে। স্থানীয়রা জানান, ৪-৫দিন পূর্বে সুহেল মাহমুদের ভূমির সীমানা পিলার হাজী মখলিছ আলী পক্ষের লোকজন উপড়ে ফেললে উভয় পক্ষের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। উত্তপ্ত পরিস্থিতি সংঘর্ষে রূপ নেয়ার আগেই স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের মধ্যস্থতায় সালিশ বৈঠকে নিস্পত্তির চেষ্টা চালানো হয়। শুক্রবার রাতে আকস্মিক কয়েকটি ঢিল সুহেল মাহমুদের বাড়িতে পড়লে সংঘর্ষের সূত্রপাত ঘটে। এক পর্যায়ে উভয়পক্ষ তুমুল সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে গোটা গ্রাম রনক্ষেত্রে পরিনত হয়। প্রায় ৩ ঘন্টা ব্যাপী দফায়-দফায় সংঘর্ষ চলতে থাকলে পুলিশ বাহিনী বার-বার চেষ্টা করেও সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রনে আনতে পারেনি। রাত প্রায় সাড়ে ১০টার দিকে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রনে আসলেও উভয়পক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোন মুহুর্তে আবারো সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতে পারে বলে স্থানীয়রা আশংকা করছেন। সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ গুরুতর আহত সামছু মিয়া (৩৫), ফখরুল ইসলাম (২১), রাকিব (৮), জামিল (২০) কে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আবুল খয়ের (২৬), শাহ আলম (৩৫), সামছুল ইসলাম (৬০) আবু বকর (১৭), রবিন (১৭), সাইফুল ইসলাম (৪০), অনিক (১৪), ইমতিয়াজ (১৪), ইসতিয়াক (১৭), মফিজ উদ্দিন (৫৫), সজল (১৮), আবু তাহের (১৮), ফাহিম (১৭), মাহতাব মিয়া (৪২), মোস্তফা (২৫), হামিদুল হক (১৮), রিফাত আহমদ (১৫), তাহমিদ আহমদ (১৬), সাবলিক হোসেন (৩২), কামরুল হাসান (২২), বদরুল আলম (৩৫), আব্দুর রহমান (২০), তাজুল ইসলাম (৩৫), সাইদুল ইসলাম (৬০), জাহাঙ্গীর আলম (২৮), আব্দুস ছাত্তার (১৬), শফিকুল ইসলাম (৬০), সাজ্জাদ মিয়া মেম্বার, জুবের আহমদ (২৮), জামিল (২৫), জুম্মান আহমদ (২৬), রাসেল (৩২), সুহেল মাহমুদ (৪০), আলী হোসেন (৪৬), জেসমিন বেগম (২৮), আনোয়ার হোসেন (৩০), এসআই নাজমুল, এসআই শাহিন, এসআই হারুন, এসআই রসিদসহ অন্যান্য আহতদের ছাতক হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে সরকারি নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে অবাধে মাছ শিকার

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) ঃ নেত্রকোণার মদনে তিয়শ্রী ইউনিয়নের তিয়শ্রী বাজারের পাশে ...

মদনে অবৈধভাবে চলছে মাছ শিকারের মহোৎসব

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) : নেত্রকোণা মদন উপজেলার মাঘান ইউনিয়নের নয়াপাড়া ও ...