ব্রেকিং নিউজ
Home | আন্তর্জাতিক | চ্যালেঞ্জের মুখে মনমোহন সরকার

চ্যালেঞ্জের মুখে মনমোহন সরকার

স্টাফ রিপোর্টার, ২০ মার্চ, বিডিটুডে ২৪ডটকম : শ্রীলঙ্কার তামিল ইস্যুতে মনমোহন সিং সরকার থেকে সমর্থন তুলে নিল শরিক দল ডিএমকে৷ দিল্লির রাজনৈতিক অলিন্দে জোর জল্পনা – অন্তর্বর্তী নির্বাচন কি আসন্ন? কংগ্রেসের তরফে অবশ্য দাবি, জোট সরকার সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারায় নি৷

শ্রীলঙ্কার তামিল জনগোষ্ঠীর ওপর মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জাতিসংঘে শ্রীলঙ্কা সরকারের বিরুদ্ধে যে প্রস্তাব আনতে চলেছে, সেই প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেবার ইস্যু নিয়ে কংগ্রেস জোট সরকারের অন্যতম শরিক ডিএমকে দল সরকারের ওপর থেকে সমর্থন তুলে নেবার ফলে সরকার পড়েছে গভীর সংকটে৷ ডিএমকে-এর পাঁচজন মন্ত্রীসহ ১৮জন সাংসদ বুধবার ইস্তফা দেবেন৷
এর ফলে সরকার সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েছে এই যুক্তিতে রাজনৈতিক মহলে জোর জল্পনা চলেছে যে, দেশে অন্তর্বর্তী নির্বাচন আসন্ন৷ তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থন তুলে নেবার পর সংখ্যার নিরিখে মনমোহন সিং সরকার বেশ দুর্বল হয়ে পড়েছিল৷ অবশ্য কংগ্রেসের দাবি, সরকারের সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে৷ সরকার স্থিতিশীল৷
সংসদের ৫৪৩টি আসনের মধ্যে সরকারের টিকে থাকতে হলে ম্যাজিক সংখ্যা হলো ২৭২৷ কংগ্রেসের এখন আছে ২৩০জন৷ সমাজবাদী পার্টি এবং বহুজন সমাজ পার্টির ৪৩ জন সাংসদ সরকারকে বাইরে থেকে সমর্থন দেবার কথা বলায় সেই ম্যাজিক সংখ্যা হয়তো সরকার জোগাড় করতে পারে৷
বিজেপি বলেছে, নির্বাচনে আপত্তি নেই৷ কারণ ভেন্টিলেশনে থাকা সরকার জোড়াতালি দিয়ে আর কতদিন চলতে পারে! পর্যবেক্ষকদের মতে, বিজেপি নির্বাচনের জন্য তৈরি নয় পুরোপুরি৷ তারা চাইছে মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড় ও দিল্লি বিধানসভা নির্বাচন আগে শেষ হোক৷ প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী হিসেবে নরেন্দ্র মোদীকে এখনো সেভাবে তুলে ধরা হয়নি৷ কংগ্রেসও চাইছে আগে হোক কর্ণাটকের ভোট৷ ভোটের পক্ষে আছে তৃণমূল, পাঞ্জাবের আকালি দল ও জয়ললিতার এআইএডিএমকে৷
ডিএমকে প্রধান করুণানিধি অবশ্য বলেছেন, তাঁর দলের দাবি যদি সরকার মেনে নেন, তাহলে সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করা হবে৷ দাবি হলো শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘনের খসড়া প্রস্তাবে সংশোধনী এনে তা আরো কঠোর করতে হবে৷ সেজন্য ‘গণহত্যা‘ এবং যুদ্ধাপরাধের আন্তর্জাতিক তদন্তের উল্লেখ থাকতে হবে৷
কিন্তু কূটনৈতিক স্বার্থে জাতিসংঘে শ্রীলঙ্কার বিরোধিতা করা কঠিন৷ শ্রীলঙ্কার সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক ৮০ বা ৯০ দশকের মতো নেই৷ কাজেই ডিএমকে দলকে না চটিয়ে একটা ভারসাম্য অবস্থান বজায় রাখতে হবে সরকারকে৷ বিশ্বের কাছে বার্তা দিতে হবে প্রতিবেশী শ্রীলঙ্কার ওপর চীনের একাধিপত্য ভারতের পক্ষে মেনে নেয়া সম্ভব নয়৷ সেই লক্ষ্যে সংসদে ভারতের সংশোধনী প্রস্তাব পাশ করাতে চাইছে মনমোহন সিং সরকার৷ তাতে জোর দেয়া হবে শ্রীলঙ্কা তামিলদের সম-অধিকার এবং সম-মর্যাদার সঙ্গে রাজনৈতিক অধিকার৷ আন্তর্জাতিক তদন্তের জায়গায় থাকবে তদন্তের ব্যবস্থাপনা৷ সম্ভবত আজ বুধবার তা পেশ করা হবে৷ সূত্র: ডিডব্লিও
x

Check Also

‘গ্রেটার সিলেট এসোসিয়েশন ইন স্পেন’ নির্বাচনে মুজাক্কির – সেলিম প্যানেল বিজয়ী

জিয়াউল হক জুমন, স্পেন প্রতিনিধিঃ সিলেট বিভাগের চারটি জেলা নিয়ে গঠিত গ্রেটার ...

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভা

আনোয়ার এইচ খান ফাহিম ইউরোপীয় ব্যুরো প্রধান, পর্তুগালঃ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার ...