Home | আন্তর্জাতিক | চেয়ারম্যান বলে কথা ! মামলায় বিবাদী হয়েও দাবী করলেন বাদী হিসাবে

চেয়ারম্যান বলে কথা ! মামলায় বিবাদী হয়েও দাবী করলেন বাদী হিসাবে

মোঃ আব্দুর রহিম, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি,২৭ মার্চ,বিডিটুডে ২৪ডটকম ॥ উলিপুরে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিচারাধীন মামলার বিবাদী একজন ইউপি চেয়ারম্যান আইনজীবির মাধ্যমে নিজেকে ঐ মামলার বাদী হিসাবে দাবী করায় আদালত পাড়ায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।  মামলায় বাদী আবুল হোসেনের নামের সাথে ঐ চেয়ারম্যানের নামের মিল থাকায় তিনি প্রতিপক্ষকে পর্যুদস্ত করতে বিজ্ঞ আদালতে মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করেন। আদালতের বিচারক বাদীপকে নাম বিভ্রাটের ব্যাখ্যা প্রদানের নির্দেশ দিয়েছেন।
মামলার অভিযোগ ও এলাকাবাসী  সূত্রে জানা গেছে, কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার বাগুয়া অনন্তপুর স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্র/ছাত্রী ২০০৫ সাল হতে এইচ এস সি পাবলিক পরীায় অংশ গ্রহন করে আসছে। সরকারী বিধি অনুযায়ী স্কুল এন্ড কলেজে প্রধানের শুন্য পদে অধ্যক্ষ নিয়োগ করার বিধান থাকলেও স্কুল শাখার সহকারী শিক এস এম মোস্তাফিজার রহমান মোটা অংকের অর্থ ব্যয়ে ২০০৭ সালে প্রধান শিক পদে  নিয়োগ নিয়ে কলেজ অস্বীকার করেন । অভিযোগ রয়েছে, অনৈতিকভাবে এ অবৈধ নিয়োগ দেয়ার সমস্ত আয়োজনের সাথে যুক্ত ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নূরুল ইসলাম। সরকারী বিধি উপেক্ষা করে অধ্যক্ষের পরিবর্তে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ হওয়ায় হাতিয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের মৃত শুকুর মামুদ এর ছেলে আবুল হোসেন সহ এলাকার অভিভাবক মহল বাদী হয়ে উলিপুর সহকারী জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। বাগুয়া অনন্তপুর বাজারের চাতাল ও স’ মিল ব্যবসায়ী আবুল হোসেন মামলায় ১৩নং বাদী হিসাবে স্বাক্ষর করেন, যার মামলা নং ৬৯/০৮ অন্য ।
অপর দিকে মামলায় ২১নং বিবাদী বি এম আবুল হোসেন হাতিয়া নিম্ম মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক। অনন্তপুর (চিড়া খাওয়ার পাড়) গ্রামের মৃত বাদশা মিয়ার ছেলে বি এম আবুল হোসেন বর্তমানে হাতিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হওয়ার আগে ৬নং ওয়ার্ডে সদস্য ছিলেন। গত ০২/০১/১৩ ইং তারিখে বাগুয়া অনন্তপুর স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান শিক গভর্নিং বডির এডহক কমিটি গঠন করেন। এস এম মোস্তাফিজার রহমানের গঠিত ঐ গভর্নিং বডির এডহক কমিটির সভাপতি হওয়ায় তাকে ২১নং বিবাদী হিসাবে মামলায় অন্তর্ভূক্ত করেন বাদী প। এদিকে একজন চেয়ারম্যান মামলার বিবাদি থেকে আদালতে বাদি হিসাবে দাবী করায় এলাকায় মানুষজনের মাঝে মুখরোচক গল্প-রসের সৃষ্টি হয়েছে। এ ব্যাপারে হাতিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বি এম আবুল হোসেনের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার ০৭১৭৩—- মুঠোফোন বন্ধ থাকায় যোগাযোগ হয়নি।

x

Check Also

বাংলাদেশের পতাকার রঙে আলোকিত হলো অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডের রাজধানী ব্রিসবেনের দুটি মূল স্থাপনা স্টোরি ব্রিজ এবং ...

অবশেষে বৈঠকে বসছে ভারত ও পাকিস্তান

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : দুই বছর পর সিন্ধুর জল বণ্টন নিয়ে মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) ভারতের সঙ্গে ...