ব্রেকিং নিউজ
Home | ব্রেকিং নিউজ | গোপালগঞ্জে জেলা প্রশাসকের অপসারনের দাবীতে আইনজীবীদের অনির্দিষ্টকালের জন্য আদালত বর্জন

গোপালগঞ্জে জেলা প্রশাসকের অপসারনের দাবীতে আইনজীবীদের অনির্দিষ্টকালের জন্য আদালত বর্জন

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জে জেলা প্রশাসকের অপসারনের দাবীতে চলমান আন্দোলনের সাথে একত্মতা পোষন করে অনির্দিষ্টকালের জন্য আদালত বর্জনের কর্মসূচী ঘোষনা করেছে জেলা আইনজীবী সমিতি। আইনজীবী সমিতি জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে পরিচালিত ১০৭ ধারা ও ১৪৪ ধারা আদালত বর্জনের কর্মসূচী গ্রহন করে বলে সমিতির সভাপতি এডভোকেট আলহাজ্জ্ব এম এম নাসির আহমেদ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তীতে এ তথ্য জানানো হয়। এরআগে স্থানীয় পৌরপার্কে জেলা প্রশাসকের অপসারনের দাবীতে বিক্ষোভ সমাবেশ করে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ।

আইনজীবী সমিতির প্রেস বিজ্ঞপ্তী উল্লেখ করা হয় আইনজীবী সমিতির নামে বিআরএস রেকর্ডকৃত জায়গায় ‘শেখ সেলিম ভবন’ এর নির্মান কাজ সুকৌশলে স্থগিত এবং অবশিষ্ট ফাঁকা জায়গা জবর দখল করার অপচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন জেলা প্রশাসক। তিনি হোটেল মালিকদের দিয়ে আইনজীবী সমিতির জায়গা দখল করার চেষ্টা করে প্রায় তিন শতাধিক আইনজীবী, শিক্ষানবীশ আইনজীবী ও আইনজীবী সহকারীদের রুটি রুজির উপর আঘাত করে নিজ স্বার্থে এল,আর ফান্ডকে মোটাতাজা করছেন। জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে পর্চা তুলতে আবেদনের সাথে ২৫০টাকা নেয়া হলেও কোন রশিদ প্রদান করা হয় না। ভুমি অধিগ্রহন শাখায় সার্ভেয়ারসহ সংশ্লিষ্ট্ কর্মকর্তাদের ১৫-২০ পারসেন্ট টাকা না দিলে ভ’মি মালিকরা ক্ষতিপূরনের টাকা প্রদানে নানান হয়রানি করা হয়। বিষয়টি এখন ওপেন সিক্রেট।

এছাড়া আইন মন্ত্রনালয়ের চিঠি থাকা সত্বেয় সাবেক মহকুমা প্রশাসকের কার্যালয়ে অবস্থিত রেকর্ড রুমে প্রধানমন্ত্রীর হত্যাচেষ্টা মামলার সহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ মামলার আলামত যথাযথভাবে সংরক্ষন না করে উক্ত ভবনটি নাম মাত্র মূল্যে নিলাম ডেকে বিক্রি করে ভেঙ্গে ফেলেন জেলা প্রশাসক। পাশপাশি আইন আদালতের সাথে সম্পৃক্ত নন জুডিসিয়াল স্ট্যাম্প ও কার্টিজ পেপার জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে সরবরাহ করা হয়। ওই শাখার অসৎ কর্মকর্তা ও কর্মচারী সরবরাহ কম দেখিয়ে ১০০টাকা স্ট্যাম্প ১২০ টাকা ও ৪০ টাকা দিয়ে কার্তিজ পোর কিনতে হচ্ছে। ফলে সাধারন মানুষ আদালত ও সরকারের উপর আস্থা হারাতে বসেছে।

উল্লেখ্য, চতুর্খ জাতীয় উন্নয়ন মেলা উপলক্ষে গোপালগঞ্জ জেলার জন্য নির্মিত থিমসং তৈরী করে জেলা প্রশাসন। ওই থিমসং এর ভিডিও চিত্রে এলাকার জনপ্রতিনিধিদের ছবি ও কর্মকান্ড উপস্থাপন না করায় ব্যপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

এ ঘটনার প্রতিবাদে গত ৬ অক্টোবর জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকারের অপসারন দাবী করে স্থানীয় আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ এর প্রতিবাদ করে বিক্ষোভ সমাবেশ করে।

অপরদিকে উন্নয়ন মেলার আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক তার অনিচ্ছাকৃত ত্রুটির জন্য দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, আওয়ামীলীগের জেলা পর্যায়ের দায়িত্বশীল নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে থিমসংটি তৈরী করা হয়। পরবর্তীতে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় থিমসংটির ভিডিও চিত্র উপস্থাপন করা হয়্। কোন ত্রুটি যাতে না থাকে এবং কি ভাবে থিমসংটিকে আরো সমৃদ্ধ করা যায় সে লক্ষে সভায় উপস্থিত সবার উম্মুক্ত মতামত আহবান করা হয়। সেখানে জেলা আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে স্কুল ছাত্রী ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) : নেত্রকোণার মদন উপজেলায় ফতেপুর ইউনিয়নের পশ্চিমপাড়া গ্রামের মাহাবুবের ...

কুমিল্লায় বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যুবককে হত্যা

কুমিল্লা প্রতিনিধি : কুমিল্লা নগরীতে মুঠোফোনে কল দিয়ে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে ডেকোরেটর ...