ব্রেকিং নিউজ
Home | সারা দেশ | গাইবান্ধার সকল খবর

গাইবান্ধার সকল খবর

gaibandha(1)

সাদুল্যাপুরে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি গঠন

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা ঃ বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়ন শাখার আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। জানা গেছে, নুরুল ইসলাম ওরফে সাদা মাষ্টারকে আহবায়ক ও রফিকুল ইসলাম প্রধান, শ্রী সুভাষ চন্দ্র দাস ও সাদা মিয়া কে যগ্ম আহবায়ক করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট দামোদরপুর ইউনিয়ন শাখার আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে।
সাদুল্যাপুরে মরিচফুল বেগম হত্যা মামলার ২ আসামী গ্রেফতার

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা ঃ গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার নলডাঙ্গা ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামের আবু সাইদের স্ত্রী মরিচফুল বেগম (৩৩) কে গত ২৫ সেপ্টেম্বর হত্যা করে পার্শ্ববতী ধান ক্ষেতের জমিতে ফেলে রেখে যায়। এ ঘটনায় নিহতের বড় বোন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার উপ-পরিদর্শক এসআই গোলাম রব্বানী ও এএসআই মাসুম বিল্লাহ অভিযান চালিয়ে ওই হত্যা কান্ডের সাথে জড়িত সন্দেহে শনিবার ভোর সাড়ে ৫টায় পিপুল মিয়া (৪১) ও শাহিনুর বেগম (৩৮) নামের দুই জন কে তাদের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করেছে।
গাইবান্ধায় ৫৫০টি মন্ডপে দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে
ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা ঃ সারাদেশের মতো গাইবান্ধাতেও সাড়ম্বরে দুর্গা পূজা পালনে সমস্ত প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। জেলার পূজা উদযাপন পরিষদ সুত্রে জানা গেছে, সাতটি উপজেলা ও তিনটি পৌর এলাকায় এ বছর ৫৫০টি মন্ডপ ও মন্দিরে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। এরমধ্যে গাইবান্ধা সদর উপজেলায় ১০০টি, সুন্দরগঞ্জে ১২২টি, গোবিন্দগঞ্জে ১০৬টি, সাদুল্যাপুরে ৯৩টি, ফুলছড়িতে ১৭টি, সাঘাটায় ৫৮টি এবং পলাশবাড়ি উপজেলায় ৫৪টি মন্ডপ ও মন্দিরে দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হবে। সুষ্ঠুভাবে পুজা উদযাপন ও  আইনশৃংখলা রায় ও জেলা প্রশাসন এবং পুলিশ প্রশাসনের প থেকে প্রয়োজনীয় পদপে গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।
সাদুল্যাপুরে নববধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা ঃ গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার দশলিয়া গ্রাম থেকে শনিবার সকালে ফাঁসিতে ঝুলন্ত অবস্থায় রুবি বেগম (২০) নামে এক নববধুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রুবি বেগম উপজেলার নলডাঙ্গা ইউনিয়নের দশলিয়া গ্রামের মো. পিপুল মিয়ার স্ত্রী। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শোয়ার ঘরে ফাঁসিতে ঝুলন্ত অবস্থায় রুবিকে দেখতে পেয়ে বাড়ির লোকজন পুলিশকে খবর দেন।সাদুল্যাপুর থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম জানান, এক বছর আগে পিপুলের সঙ্গে রুবির বিয়ে হয়। রুবির লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা আধুনিক হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় রুবির বাবা লোকমান হেকিম মামলা করবেন বলে জানান ওসি। তবে রুবির বাবা লোকমান হেকিমের দাবী পারিবারিক দ্বন্দের কারণে স্বামী ও শশুর বাড়ির লোকজন রুবি বেগমকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখে।

সাঘাটায় মঙ্গাতাড়ানোরের বাম্পার ফলন: কৃষকদের মুখে হাসি
ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা ঃ মঙ্গা কবলিত গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলায় কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের পরামর্শে চলতি আমন মৌসুমে মঙ্গাতাড়ানোর ধান হিসেবে পরিচিত আগাম জাতের বিশেষ উচ্চফলনশীল জাতের ধান চাষ করা হয়েছিল বেশিমাত্রায়। যে ধান আশ্বিন মাসের শেষভাগেও পাকতে শুরু করেছে। আর সেই ধানের বাম্পার ফলন হওয়ায় কৃষকের মুখে ফুটেছে হাসির ঝিলিক। উলেখ্য, আশ্বিন ও কার্তিক মাসে কোন ফসল না থাকায় এ এলাকার কৃষকরা মঙ্গা কবলে পড়ে চরম বিপাকে পড়তো। কিন্তু জেলার চরাঞ্চলগুলোসহ বিস্তৃণ এলাকায় এখন এ দু’মাসেই আগাম জাতের ধান উৎপাদিত হচ্ছে। ফলে চিরায়ত মঙ্গা এখন এ এলাকা থেকে বিতাড়িত হচ্ছে। সাঘাটা উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, এবারে এ উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে সাড়ে ১৪ হাজার হেক্টর জমিতে রোপা আমন চাষের ল্যমাত্রা নিধারণ করা হয়। তার মধ্যে উচ্চফলশীল বিভিন্ন  জাতের আগাম ধানের চাষাবাদ করা হয়েছে ৫শত হেক্টর জমিতে। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় বাম্পার ফলন হয়েছে। স্বল্পব্যয়ে এবং অল্প সময়ে কৃষকেরা এ ধানের চাষাবাদ করে মঙ্গার সময়টিতে ধান ঘরে তুলে একই জমিতে রবি ফসলেরও চাষ করতে পারবে। এতে কৃষকেরা ভালই লাভবান হবে এবং কার্তিকের মঙ্গা দুর হবে। উপজেলার সর্বত্রই এ ধান পাকতে শুরু করেছে। বিশেষ এ ধানের জাতের মধ্যে রয়েছে, উচ্চ ফলনশীল ময়না, তেজ এবং হিরা-২।  ক্ষেতে শোভা পাচ্ছে সোনালী রঙের পাকা ধানের সমারোহ। আগে মরা কার্তিক হিসেবে খ্যাত কার্তিকের প্রথম সপ্তাহেই শুরু ধান কাটা মাড়াইয়ের উৎসব।সাঘাটার কচুয়া ইউনিয়নের অনন্তপুর গ্রামের আর্দশ কৃষক জাহাঙ্গীর আলম, আব্দুস ছামাদ, মোফাজ্জল হোসেন, আছান আলীসহ পাশ্ববর্তী গ্রামের কৃষকেরা জানায়, তারা গত জুলাই মাসের শেষের দিকে আগাম জাতের উচ্চ ফলনশীল ময়না, তেজ ও হিরা-২ জাতের রোপা আমনের চারা জমিতে রোপন করেন। বৃষ্টিপাত নাহলেও জমিতে সেচ দিয়ে চাষাবাদ করেছেন। ফলে এবারে তাদের এ ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে।  মাত্র ৯০ দিনের মধ্যেই তারা ধান ঘরে তুলতে পারছে। বোনারপাড়া বাজারের বিসিআইসি’র সার  ও বীজ ডিলার সাকোয়াত হোসেন জানায়,  এ সময়ে আগাম জাতের ময়না, তেজ, ও হিরা-২ জাতের আমন ধান চাষ করলে অধিক ফলন হয়।  এতে একদিকে যেমন মঙ্গাকালে ধান ঘরে আসে। অন্যদিকে তেমনি একই জমিতে রবি ফসল চাষ করে কৃষকরা দু’তরফা লাভবান হতে পারে।সাঘাটা উপজেলা কৃষি অফিসার সোহেল মোহাম্মদ সামসুদ্দীন ফিরোজ বলেন, আগাম জাতের এ ধান চাষে জমির সর্বোচ্চ ব্যবহার বলতে যা বুঝায় সেটাই হবে। বাম্পার ফলন হওয়ায় এবার বিঘা প্রতি ২০-২৫ মণ ধান উৎপাদন হবে বলে আশা করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, একই জমিতে কৃষকেরা আমন, রবি ফসল ও বোরো ধানেরও চাষ করতে পারবে।
রংপুরে গণপিটুনিতে ডাকাত নিহত
ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা ঃ রংপুরের পাগলাপীরে ডাকাতি করে মোটরসাইকেল নিয়ে পালানোর সময় গণপিটুনিতে সাজু (৪৮) নামে এক ডাকাত নিহত এবং বাদশা মিয়া নামে অপর ডাকাত আহত হয়েছেন। শুক্রবার দিবাগত রাত পৌনে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।জানা গেছে, রংপুর সিটি করপোরেশনের ১নং ওয়ার্ডের মন্থনা মসজিদ সংলগ্ন পুলিশ বক্স এলাকা থেকে স্বপন নামের এক ব্যক্তি মোটরসাইকেলে করে বাড়ি যাচ্ছিলো। রাত পৌনে ১২টার দিকে কয়েকজন ডাকাত মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে এবং স্বপনকে পিটিয়ে মোটরসাইকেলটি ছিনিয়ে নেয়। তার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ডাকাতদের ধাওয়া করে। পরে পাগলাপীর নামক স্থানে আটক করে স্থানীয় লোকজন দুই ডাকাতকে গণপিটুনি দিলে ঘটনাস্থলেই ডাকাত সাজু নিহত এবং বাদশা আহত হয়। বাদশাকে রংপুর মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।রংপুর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ শাহাবুদ্দিন খলিফা এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সাদুল্যাপুুরে মাদক ব্যবসায়ীর ৬ মাসের কারাদন্ড
ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা ঃ গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরে ইউনুস আলী (৩৮) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে ৬ মাসের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। শনিবার সকালে আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সাদুল্যাপুর উপজেলা ইউএনও মো. গোলাম মওলা এই দন্ডাদেশ দেন। দন্ডপ্রাপ্ত ইউনুস আলী উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের বড়দাউদপুর গ্রামের মৃত. মতিয়ার রহমানের ছেলে। সাদুল্যাপুর থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে এসআই নাসির উদ্দিন ও এএসআই মাসুম বিল্লাহ ইউনুসের বাড়ীতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করেন। এসময় তার বাড়ীতে তল্লাসী চালিয়ে ৫০ লিটার চোলাই মদ উদ্ধার করা হয়। তিনি আরো জানান, ইউনুস আলী দীর্ঘদিন ধরে চোলাই মদের পাইকারী ব্যবসা করে আসছিলেন। ভ্রাম্যমান আদালতে কারাদ- প্রদান করে দুপুরে তাকে গাইবান্ধা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

সাঘাটায় ৫৪টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গা পূজার আয়োজন
ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা ঃ হিন্দু সম্প্রদায়ের সব চাইতে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা।  গাইবান্ধার সাঘাটায় এ বছর ৫৪ টি মন্ডপে চলছে প্রতিমা তৈরীর কাজ। উৎসব মূখর পরিবেশে প্রতিমা তৈরীতে ব্যস্ত সময় পার করছে প্রতীমা শিল্পীরা। প্রতিমা ও মন্দিরের ঐতিহ্য সাজ-সজ্জার কথা মাথায় রেখে সুন্দর্য্য ফুটিয়ে তুলতে হয় শিল্পীকে। দুর্গা, গণেশ, লক্ষ্মী, কার্তিক, স্বরস্বতী মহিষাসুর ও দেবীর বাহন সিংহ গড়ার কাজ প্রায় শেষ। সাজ-সজ্জা ও রং তুলির আচর দিলেই প্রাণ পাবে প্রতীমা।সরেজমিনে ঘুরে জানা যায়, উপজেলার পদুম শহর ইউনিয়নে ৫টি, ভরতখালীতে ৩টি, কচুয়ায় ৪টি, মুক্তিনগরে ৪টি, ঘুড়িদহে ১২টি, জুমারবাড়ী ৪টি, কামালেরপাড়া ২ টি, বোনারপাড়ায় ১৩ টি ও সাঘাটায় ৭টি মোট ৫৪টি মন্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হতে চলেছে।  প্রতীমা নির্মাণ শিল্পী হরেন্দ্রনাথ পাল জানান, বাবা স্বর্গীয় যতীন্দ্রনাথ পালের কাছেই দীক্ষা নিয়েই এ পেশায় এসেছি। এ বছর বিভিন্ন পূজা মন্ডপে ৭টি প্রতীমা তৈরীর কাজ নিয়েছি। সহ শিল্পীদের মজুরী দিয়ে ৫০-৬০ হাজার টাকা উর্পাজন হবে। কিন্তু এই উপার্জন দিয়েই পরিবার পরিজন নিয়ে অতি কষ্টে দিনাতিপাত করতে হচ্ছে। সাঘাটা উপজেলার পূজা মন্ডপ কমিটির সাধারণ সম্পাদক গৌতম কুমার চন্দের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, আইন শৃংখলার ব্যাপারে পুলিশ প্রশাসন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুল আউয়াল সার্বক্ষনিক খোজ -খরব নিচ্ছেন। প্রশাসন নিষ্ঠার সাথে তাদের দায়িত্ব পালন করবেন বলে আসা ব্যক্ত করেছেন। আগামী বৃহস্পতিবার ১০ অক্টোম্বর দেবীর দোলায় আগমের মধ্যে দিয়ে শুরু হয়ে ১৪ই অক্টোম্বর গজে গমনের মধ্যে দিয়ে শেষ হবে হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় সারদীয় দুর্গাৎসব।

সাঘাটায় বিএনপি’র অবস্থান সুদৃঢ় করতে ৬ নেতার সাংগঠনিক তৎপরতা
ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা ঃ গাইবান্ধার সাঘাটায় বিএনপি’র মনোনয়ন প্রত্যাশী ৬ নেতা এখন রাজনৈতিক নানা তৎপরতা সহ সাংগঠনিক কর্মকান্ড নিয়ে মাঠে রয়েছেন। নির্বাচনী গণ সংযোগ এখনই না করলেও দলীয় কর্মকান্ডে সক্রীয় অংশ গ্রহণ না করলেও যে যার মত নেতা কর্মীদের গুছিয়ে নেওয়ার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলা নিয়ে গঠিত গাইবান্ধা -৫ সংসদীয় আসনের বিএনপির সাংগঠনিক অবস্থান অনেকটাই পূর্বের চেয়ে সূদৃঢ় বলে মনে করেন মাঠ পর্যায়ের ত্যাগী কর্মীরা। পূর্বের মতানৈক্যের অনেকাংশে অবসান, ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দের জোরালো অবস্থান ও মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নিয়মিত সাংগঠনিক তৎপরতায় এবার কারো উপর ভরসা না করে একক ভাবে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন অনেকে। বিগত নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ এলাকার বিএনপি’র প্রার্থী মোহাম্মদ হাসান আলী প্রতিটি দলীয় ও কেন্দ্রীয় কর্মসূচী সফল করতে অংশ গ্রহণ ও তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন। গণমানুষ ও পিছিয়ে পড়াদের উন্নয়ন ও রাজনীতিতে সুশাসনের অঙ্গীকার নিয়ে নানা সেমিনার ও নেতাকর্মীদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন সুশাসনে পিএইচডি করা পরিশীলিত রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ড. শাকিল আহম্মেদ। উপজেলা বিএনপি’র সিনিয়র সহ সভাপতি এ্যাড. নাজেমুল ইসলাম নয়ন বিগত দুই বার এ আসন থেকে বিএনপি’র মনোনয়ন চেয়েছিলেন। এবারও বসে নেই তিনি। কেন্দ্রে যোগাযোগ সহ বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে যোগ দিচ্ছেন তিনি। নব্বই দশকের ছাত্র নেতা বর্তমান সাঘাটা উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান মঈন প্রধান লাবু বিগত দিনে নানা ভাবে কারা নির্যাতিত। তিনিও এবার মনোনয়ন পেতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন বলে জানা গেছে। এদিকে কেন্দ্রীয় তাঁতি দল নেতা উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ন সম্পাদক অধ্যক্ষ আরশাদুল কবির রাঙ্গা ছাড়াও জিয়া শিশু কিশোর সংগঠনের নেতা ময়নুল ইসলাম শামীম ও মনোনয়ন পাওয়ার আশায় নদী ভাঙ্গন কবলিত মানুষের পাশে দাড়ানো সহ দলীয় কর্মকান্ড জোরেসোড়ে চালিয়ে যাচ্ছেন।

রংপুর চিনিকল আখচাষী কল্যাণ গ্রুপের নির্বাচন
ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা ঃ মহিমাগঞ্জের রংপুর চিনিকল আখচাষী কল্যাণ গ্রুপের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন ও কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচন ২০১৩ গতকাল অনুষ্ঠিত হয়েছে। চিনিকল ট্রেনিং কমপ্লেক্স মিলনায়তনে সংগঠনের সভাপতি জিন্নাত আলী প্রধানের সভাপতিত্বে প্রথম পর্বে ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। আখচাষীদের বিভিন্ন সমস্যা ও তা সমাধানের দাবি নিয়ে বক্তব্য রাখেন আখচাষী নেতা আব্দুর রশীদ ধলু, আব্দুল মতিন মোল্লা, শাহ আলম সরদার, এনতাজুর রহমান, আনোয়ারুল ইসলাম, হাবিবুর রহমান (হাবিব) প্রমুখ। এ পর্বে চলতি কার্যনির্বাহী পরিষদ বিলুপ্তি ঘোষণা করা হয়। বিকেলে দ্বিতীয় পর্বে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিন্নাত আলী প্রধানকে পুনরায় সভাপতি এবং সর্বসম্মতিক্রমে শামসুল আলম সরকারকে সাধারণ সম্পাদক করে ৪১ সদস্য বিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে ৪৪তম বিজ্ঞান মেলা- ২০২২ উদযাপিত

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) ঃ নেত্রকোণার মদনে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে ৪৪তম জাতীয় ...

মদনে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহ- ২০২২ উদযাপন

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) ঃ ‘দুর্ঘটনা দুর্যোগ হ্রাস করি, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা ...