Home | আন্তর্জাতিক | খুলনায় হরতালের সমর্থনে নগরীতে জামায়াতের মিছিল ও পিকেটিং

খুলনায় হরতালের সমর্থনে নগরীতে জামায়াতের মিছিল ও পিকেটিং

এম শিমুল খান, খুলনা প্রতিনিধি, ২৭ মার্চ, বিডিটুডে ২৪ডটকম : আটক নেতাকর্মীদের মুক্তি, গণহত্যা বন্ধ, সরকারের পদত্যাগ ও নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন ও বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মুফাসসিরে কুরআন আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীসহ শীর্ষ নেতৃবৃন্দের মুক্তির দাবিতে ১৮ দলীয় জোট ঘোষিত ৩৬ ঘন্টার হরতাল সফলের ল্েয আজ বুধবার জামায়াতে ইসলামী থানায় থানায় নগরীতে বিােভ মিছিল ও পিকেটিং করে। বিােভ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন সোনাডাঙ্গা থানার সেক্রেটারী মাওলানা শাহারুল ইসলাম, খালিশপুর থানা মোঃ মাহফুজুর রহমান, বিএনপির ৯ নং ওয়ার্ড সভাপতি কাজী নিরু, শিবির নেতা ফারুক হোসাইন, মোঃ মোস্তফা প্রমূখ। মিছিল পূর্ব সমাবেশে বক্তারা বলেন, সরকার সারা দেশে গণহত্যা, গণনির্যাতন, গণগ্রেফতার অভিযান চালিয়ে এক শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা সৃষ্টি করেছে। হত্যা, সন্ত্রাস, গুম ইত্যাদি অপরাধ চরম আকার ধারণ করেছে। সরকারের জুলুম নির্যাতনে দেশের মানুষ আজ দিশেহারা। দেশের জনগণের জানমালের কোন নিরাপত্তা নেই। সারাদেশে পুলিশ, র‌্যাব ও সরকারের পেটুয়া বাহিনী মানুষের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে গণনির্যাতন চালাচ্ছে।  নেতৃবৃন্দ বলেন, পুলিশের এ ধরনের রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস মানুষকে ১৯৭২ থেকে ’৭৫ সাল পর্যন্ত রীবাহিনীর রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের কথাই স্মরণ করিয়ে দিচ্ছে। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, এ সরকার মতায় আসার পর এ দেশ থেকে ইসলামের নাম-নিশানা মুছে ফেলার ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। সেই ষড়যন্ত্রের প্রথম শিকার হচ্ছে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ ইসলামী দল জামায়াতে ইসলামী। আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে মিথ্যা মামলায় মৃত্যুদন্ড প্রদান করা হয়েছে। জামায়াতে ইসলামীর শীর্ষ নেতৃবৃন্দকে মিথ্যা মামলা দিয়ে আটক করে রাখা হয়েছে। জামায়াতে ইসলামীর ২০ হাজার নেতা-কর্মী আজ কারারুদ্ধ। ২ লাধিক নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে। সারা দেশে জামায়াতে ইসলামীসহ ১৮ দলীয় জোট, মসজিদের ইমাম ও বিভিন্ন ইসলামী দলের ৫ লাখ লোকের বিরুদ্ধে প্রায় ৪০ হাজার মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। নেতৃবৃন্দ এ অবস্থা থেকে সরে এসে অবিলম্বে মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীসহ ১৮ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের মুক্তি দাবি এবং গণহত্যা বন্ধ ও তত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বচানের দাবি করেন। নগরীর টুটপাড়া, রুপসা, ময়লাপোতা, গল্লামারী, সোনাডাঙ্গা বাসষ্টান্ড, নতুন রাস্তার মোড়, বৈকালী মোড়, বয়রা মোড়, মহসীন মোড়, গোয়ালখালী মোড়, কবির বটতলা, মুজগুন্নী মোড়. দৌলতপুর এলাকায় মিছিল ও পিকেটিং করে। এছাড়াও খুলনা সদর থানা, দৌলতপুর থানা ও খানজাহান আলী থানায় অনুরুপ মিছিল ও পিকেটিং বের করে এতে উপস্থিত ছিলেন সেক্রেটারী মোঃ অলিউল্লাহ, লিয়াকত হোসেন ,হাবিবুল্লাহ, মোঃ মাশরূর হাসান মুরাদ, মোঃ মনিরুল ইসলাম, হায়দার আলী, মুজাহিদুল ইসলাম প্রমুখ। এসব মিছিলে উপস্থিত ছিলেন রেদওয়ানুল হক, ছফির উদ্দীন, আবু সাঈদ, আব্দুল গফুর, আবুল বাশার, সাদ্দাম হোসেন, শহীদুল ইসলাম, আবুল হাসান, হেমায়েদ উদ্দীন, মাহফুজ আহম্মেদ, বাবুল, মোশাররফ আনসারী, আসলাম হোসেন, গোলাম সরোয়ার, সালাহা উদ্দীন, মুজাহিদুল ইসলাম, শাহাদৎ হোসেন প্রমূখ। ৩৬ ঘন্টার হরতালের ১ম দিন সুশৃংখল ও শান্তিপূর্ণ হরতাল সফল হওয়ায় নগরবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে আগামীকালকের হরতাল সফল করতে আহবান জানান খুলনা মহানগরী জামায়াতের আমীর মাওলানা আবুল কালাম আজাদ ও সেক্রেটারী অধ্যাপক মাহফুজুর রহমান। নেতৃবৃন্দ গণমানুষের দাবি আদায়ে যে কোন কর্মসূচি সফল করতে নগরবাসির প্রতি সহযোগীতা কামনা করেন।

x

Check Also

বাংলাদেশের পতাকার রঙে আলোকিত হলো অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডের রাজধানী ব্রিসবেনের দুটি মূল স্থাপনা স্টোরি ব্রিজ এবং ...

অবশেষে বৈঠকে বসছে ভারত ও পাকিস্তান

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : দুই বছর পর সিন্ধুর জল বণ্টন নিয়ে মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) ভারতের সঙ্গে ...