ব্রেকিং নিউজ
Home | আন্তর্জাতিক | খুবিতে বিতর্কিত প্রার্থীকে প্রভাষক পদে নিয়োগের প্রতিবাদে মানব বন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচী

খুবিতে বিতর্কিত প্রার্থীকে প্রভাষক পদে নিয়োগের প্রতিবাদে মানব বন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচী

এম শিমুল খান, খুলনা প্রতিনিধি, ১৮ মার্চ, বিডিটুডে ২৪ডটকম : সোমবার খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে গণিত বিভাগে প্রভাষক পদে শিক নিয়োগ নিয়ে দুর্নিতীর প্রতিবাদে এক মানব বন্ধনের আয়োজন করা হয়। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দ্যোগে এই মানব বন্ধনের আয়োজন করা হয়। উক্ত মানব বন্ধনের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল, ”জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০ তম ছাত্রী [পূর্বে রাষ্ট্রপতি কতৃক বহিস্কৃত] রীতা মজুমদারকে শিক হিসেবে নিয়োগ বন্ধ করতে হবে। শিার্থীদের ভাষ্যমতে এই নিয়োগ শুধুমাত্র দুর্নিতীর কারনেই হচ্ছে। এর আগে ছাত্র-ছাত্রীরা এই নিয়োগ বাতিলের জন্য কয়েকদফা মানব বন্ধন, অবস্থান কর্মসূচী এবং আচার্য ও উপাচার্র্য বরাবর স্বারকলিপি প্রদান সহ নানাবিধ আন্দোলন কর্মসুচী করে আসছে। কিšতু প্রশাসন ছাত্র-ছাত্রীদের এই আন্দোলন প্রশাসন আমলেই নেয় নি। এ ব্যাপারে ছাত্র বিশয়ক পরিচালক অনির্বাণ মো¯তফার সাথে কথা বললে তিনি এ ব্যাপারে প্রশাসন স্বিদ্ধাšত নেবে বলে আশ্বাস প্রকাশ করলেও আদতে কোন প্রকার কার্যক্রম চোখে পড়েনি। যার পরিপেেিত গত ১৯ শে ফেব্রুয়ারী সিন্ডিকেটের সভায় এই নিয়োগ বাতিল না করে আচার্য বরাবর সুপারিশ করা হয়। অথচ সিন্ডিকেটের হাতে এই নিয়োগ বাতিল করার পূর্ন মতা ছিল। যার পরিপ্রেেিত তার পরদিন ২০শে ফেব্রুয়ারীতে শিার্থীরা আবার অবস্থান কর্মসূচী গ্রহণ করলে ছাত্র বিশয়ক পরিচালক অনির্বাণ মো¯তফা তাদের এই আন্দোলন অযোক্তিক বলে অভিহিত করেন। মুলত যারা এই নিয়োগ বোর্ডের সাথে জড়িত তার নিজেরা নিয়োগ না দিয়ে আচার্য এর মাধ্যমে দুর্নিতীর আশ্রয়ে এই নিয়োগ বা¯তবায়নের অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলে একটি বিশ্ব¯ত সুত্রে জানা গেছে। এ ছাড়া উক্ত পদে নিয়োগের জন্য যেসকল আবেদন জমা হয়েছিল তন্মদ্ধে রীতা মজুমদার অপো ভাল প্রার্থী থাকা সত্তেও তাদের কে অযোগ্য বলে ঘোষণা করা হয়। এর পিছনে কঠিন চক্রাšত রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই নিয়োগ অতি সত্তর বন্ধ করা না হলে শিার্থীরা আরো কঠোর আন্দোলনে যাবার ঘোষণা দিয়েছেন। যদি এই নিয়োগ বহাল রাখা হয় তাহলে শীার্থীরা কাস বর্জনসহ আমরণ অনশনে যাবারও ইঙ্গিত দিয়েছে। কারন এই বিতর্কিত প্রার্থী রীতা মজুমদার বিগত সময়ে চ্যান্সেলর (মহামান্য রাষ্ট্রপতি) কতৃক দুর্নিতী ও স্বজনপ্রীতির কারণে বাতিল হয়েছে। রীতা মজুমদার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে সরকারী বি.এল কলেজ থেকে ২০০১ সালে ¯œাতক (সম্মান) ও ২০০৩ সালে ¯œাতোকত্তর পাস করেন। উক্ত মানব বন্ধনে উপস্থিত গণিত ডিসিপিন সহ অন্যান্ন ডিসিপিনের শীার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। তারা অবিলম্বে এই নিয়োগ বাতিল করা না হলে কঠোর কর্মসূচী নেবার কথা জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে গণিত ডিসিপিনের প্রধান মোঃ রফিকুল ইসলাম এর সাথে কথা বললে তিনি এই আন্দোলনের সত্যতা স্বীকার করেছেন এবং এই আন্দোলোনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন। একই সাথে অন্যান্ন ডিসিপিনের কতিপয় শিকও একাত্মতা প্রকাশ করেছেন।

x

Check Also

‘গ্রেটার সিলেট এসোসিয়েশন ইন স্পেন’ নির্বাচনে মুজাক্কির – সেলিম প্যানেল বিজয়ী

জিয়াউল হক জুমন, স্পেন প্রতিনিধিঃ সিলেট বিভাগের চারটি জেলা নিয়ে গঠিত গ্রেটার ...

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভা

আনোয়ার এইচ খান ফাহিম ইউরোপীয় ব্যুরো প্রধান, পর্তুগালঃ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার ...