Home | ফটো সংবাদ | খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতি মামলার কারাদণ্ডের আপিল শুনানি শুরু

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতি মামলার কারাদণ্ডের আপিল শুনানি শুরু

স্টাফ রিপোর্টার : জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের বিরুদ্ধে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার আপিল শুনানি শুরু হয়েছে। সকালে আপিল বিভাগ শুনানি শুরু করার নির্দেশ দিলে হাইকোর্ট বিভাগে শুনানি শুরু হয়।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ শুনানি শুরু হয়।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী আব্দুর রেজাক খান আপিল শুনানি শুরু করেন। আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে এজে মোহাম্মদ আলী, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, জয়নুল আবেদীন প্রমুখ উপস্থিত আছেন। দুদকের পক্ষে আছেন আইনজীবী খুরশিদ আলম খান।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় কারাদণ্ডের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে নিষ্পত্তি করার বাধ্যবাধকতা স্থগিত চেয়ে রিভিউ আবেদন ৩১ ‍জুলাই পর্যন্ত স্ট্যান্ডওভার রেখেছেন আপিল বিভাগ। একই সঙ্গে হাইকোর্টে আপিল শুনানি শুরু করার নির্দেশ দিয়েছেন সর্বোচ্চ আদালত। যদি ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে আপিল নিষ্পত্তি করতে না পারলে সময় বৃদ্ধির বিবেচনা করা হবে বলে আদেশ দিয়েছেন আপিল বিভাগ।

গত ২০ ফেব্রুয়ারি সাজার বিরুদ্ধে আপিল দায়ের করেন খালেদা জিয়া। ৬০ পৃষ্ঠার মূল আবেদনের সঙ্গে ১২২৩ পৃষ্ঠার নথিপত্র জমা দেয়া হয়েছে। রায়ের বিরুদ্ধে আপিলে মোট ২৫টি যুক্তি দেখানো হয়েছে। তার মধ্যে একটি হলো- যে অভিযোগে খালেদা জিয়াকে দণ্ড দেয়া হয়েছে সেটা দুর্নীতির মধ্যে পড়ে না। যে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে খালেদার সাজা হয়েছে ওই টাকা এখনও ব্যাংকে রয়েছে বলেও যুক্তি দেখানো হয়েছে। বিশেষ আদালতের দেয়া সাজার বিরুদ্ধে আপিলে খালেদা জিয়ার খালাসও চেয়েছেন তার আইনজীবরা।

দুর্নীতি দমক কমিশনের (দুদক) দায়ের করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গেল ৮ ফেব্রুয়ারি বেগম জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। মামলায় রায় হওয়ার পরই বেগম জিয়াকে নাজিমুদ্দিন রোডে পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নেয়া হয়।

এ মামলায় আপিল করা অন্য দুই আসামি কাজী সলিমুল হক কামাল ও ব্যবসায়ী শরফুদ্দিনন আহমদ। তাদেরকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। এ মামলায় পলাতক তিন আসামি হলেন- বিএনপির জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক মুখ্য সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী এবং বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান। এই তিন জন পলাতক থাকায় তারা আপিল দায়ের করেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

আরবান ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম (ইউডিপি) ব্রাক নগর পরিকল্পনা অনুশীলন ও সুশাসন’’ ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা অনুষ্ঠিত

খুলনা প্রতিনিধি : ‘‘নগর পরিকল্পনা অনুশীলন ও সুশাসন’’ বিষয়ক এক ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা ...

ফুলবাড়ীতে ঝুঁকিপূর্ণ সড়ক দিয়ে ৩০ হাজার মানুষের যাতায়াত

অনিরুদ্ধ রেজা, কুড়িগ্রাম : কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলা বড়ভিটা ইউনিয়নের ৭নং ওর্য়াডের বাংলা ...