Home | ব্রেকিং নিউজ | খালেদার বাড়ির খাবারে নিষেধাজ্ঞা অমানবিক : মির্জা ফখরুল
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। (ফাইল ফটো)

খালেদার বাড়ির খাবারে নিষেধাজ্ঞা অমানবিক : মির্জা ফখরুল

বিশেষ প্রতিনিধিঈদের দিনে খালেদা জিয়ার জন্য কারাগারে স্বজনদের নেওয়া খাবার দিতে কারা কর্তৃপক্ষের নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘটনা ‘অমানবিক’ অভিহিত করে এর নিন্দা জানিয়েছে বিএনপি।

বুধবার (২২ আগস্ট) রাতে রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর একথা জানান।

তিনি বলেন, ‘আগেই কারা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে তার পরিবারের সদস্যরা দুপুরে খাবার নিয়ে কারাগারে গিয়েছিলেন। এটা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে নিয়েছিলেন তারা (স্বজনরা)। তারপর সেখানে যাওয়ার পরে বলা হয়, ছয়জনের বেশি কেউ দেখা করতে পারবেন না এবং খাবার নিয়ে যেতে পারবেন না। এটা নজিরবিহীন ঘটনা।’

‘দেশনেত্রী খালেদা জিয়া, তিনি তিনবার এই দেশের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন, দুইবার বিরোধী দলের নেতা ছিলেন, তিনি গণতান্ত্রিক আন্দোলনে সবচেয়ে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে চলেছেন তার সঙ্গে যে আচরণটা আজকে করা হয়েছে এটা অমানবিক। অতীতে কখনো এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি। আমরা এর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘ঈদের দিনে বাসার খাবার কারাগারে নিতে দেওয়া হয়নি। এটা নজিরবিহীন। সেজন্য দেশনেত্রী খালেদা জিয়া না খেয়েই ছিলেন বলে আমরা জানতে পেরেছি।’

‘গত ঈদেও খাবার নিয়ে যাওয়া হয়। এবার কেনো এমন হলো? আর গতকাল (মঙ্গলবার) প্রধানমন্ত্রী যেভাবে কথা বলেছেন সেটা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।’

অভিযোগ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘কারা কর্তৃপক্ষ দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার স্বজনদের বলেছে যে, এটা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ, সরকারের নির্দেশ।’

’আমাদের দেশের কারাগার চলে জেল কোড অনুযায়ী। এখানে আইজি প্রিজন হচ্ছেন বড় কর্তৃপক্ষ ও সিদ্ধান্ত প্রদানের ব্যক্তি। সেই আইজি প্রিজন যখন বলেন, আমি কিছু করতে পারছি না। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ আছে।’

কারা কর্তৃপক্ষকে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার সঙ্গে জেলকোড অনুযায়ী আচরণের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এ দেশের জনগণ তাদের এই আচরণকে কখনো ক্ষমা করবে না।’

স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, গত ঈদুল ফিতরের দিনে কারাগারে ২০ জনকে দেশনেত্রীর সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হয়। বাসা থেকে খাবার নিতে দেওয়া হয়েছে। আড়াই মাসে দেশে আইনের কোনো পরিবর্তন হয়েছে কী?, কারাবিধির কী কোনো পরিবর্তন হয়েছে? কেনো ৬ জনের বেশি যেতে পারবে না, কেনো খাবার দিতে পারবে না?

‘আমরা মনে করি এসব আচরণ নিপীড়ন-নির্যাতনমূলক ও অত্যাচারী আচরণ। এটা কোনোভাবে গ্রহনযোগ্য নয়।’

এর আগে দুপুরে স্বজনরা কারাফটকে যান খালেদা জিয়ার ২০ স্বজন। তবে প্রায় ঘণ্টাখানেক পর অপেক্ষার পর ছয়জনকে দেখা করার অনুমতি দিলেও বাসা থেকে রান্না করা খাবার নিয়ে কারাগারে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি।

তবে এর আগে দুপুরে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েও কারা কর্তৃপক্ষের অনুমতি না মেলায় ফিরে যান বিএনপির শীর্ষ নেতারা।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় ৫ বছরের সাজার পর বিএনপি চেয়ারপারসন নাজিম উদ্দিন রোডের পুরাতন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারগারে বন্দি রয়েছেন খালেদা জিয়া। সঙ্গে রয়েছেন তার গৃহকর্মী ফাতেমা বেগম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

রাজধানীতে বাসচাপায় ছাত্র নিহত, সড়ক অবরোধ

স্টাফ রির্পোটার : রাজধানীতে প্রগতি সরণির নর্দ্দা এলাকায় বাসচাপায় এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। ...

দিনাজপুরের ১৩টি উপজেলায় নৌকা ৮টি, স্বতন্ত্র ৪টি ও একটিতে লাঙ্গল বিজয়ী

শাহ্ আলম শাহী, দিনাজপুর : দিনাজপুরের ১টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৮টি’তে আওয়ামীলীগ,৪’টি’তে ...