ব্রেকিং নিউজ
Home | সারা দেশ | খাগড়াছড়ির পানছড়ি ও দীঘিনালা আন্তঃ সড়কে বাস ও জীপ চলাচল অর্নিদিষ্টভাবে বন্ধ করে দিয়েছে মালিকরা

খাগড়াছড়ির পানছড়ি ও দীঘিনালা আন্তঃ সড়কে বাস ও জীপ চলাচল অর্নিদিষ্টভাবে বন্ধ করে দিয়েছে মালিকরা

khagrachari mapচাইথোয়াই মারমা, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি : খাগড়াছড়ি’র-পানছড়ি ও দীঘিনালা উপজেলায় অভ্যন্তরীন প্রধান ২টি সড়কের অর্নিদিষ্টভাবে যাত্রীবাহী পরিবহন চলাচল ব›দ্ধ করে দিয়েছে বাস মালিক ও শ্রমিক সংগঠন নেতারা । মাহেন্দ্র, সিএনজি ও মটর সাইকেলে যাত্রী পরিবহন বন্ধের দাবীতে দু’দিন অতিবাহিত হয়ে খাগড়াছড়ির সাথে পানছড়ি ও দীঘিনালা সড়কে বাস, জীপ ও পিকআপ চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে মালিকরা। গত বুধবার(১১ সেপ্টেম্বর) সকালে হটাৎ করে পরিবহন মালিকদের এমন সিদ্ধান্তে দূর্ভোগে পড়েছেন সাধারন যাত্রীরা। এই দুটি সড়কে বাস চলাচল বন্ধ থাকায় খাগড়াছড়ির সাথে দীঘিনালা ও পানছড়ি ছাড়াও রাঙ্গামাটি জেলার বাঘাইছড়ি ও লংগদু উপজেলার সাথে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে দুই জেলার ৪ উপজেলার যাত্রীরা চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। এই নিয়ে খাগড়াছড়ি বাস-মালিক সমিতি, অটো টেম্পো-মাহিন্দ্র মালিক সমিতি, টমটম(ব্যাটারী চালিত) মালিকদের ভিন্ন ভিন্ন দাবি’র প্রেেিত এই নিয়ে ত্রিমূখী পরিবহন সমস্যা সৃষ্টি হওয়ার ফলে কাছে ও দুরের যাত্রীরা পড়েছে চরম উদিগ্ন ও হতাশা ।
বাস মালিক সমিতি ও সিএনজি অটো-টেম্পো মালিক-চালক সমিতি অভ্যন্তরীন ভাড়া বিরোধের দ্ব›দ্ধ জের হিসেবে গত সপ্তাহে হঠাৎ করে পৌর প্রশাসন কর্তৃপ থেকে  আন্তঃবাস ষ্টেশন গুলোর জায়গা পরিবর্তন করে  পানছড়ি বাস ষ্টেশন চেঙ্গী স্কোয়ার থেকে স্বনির্ভর বাজার ও দীঘিনালা ষ্টেশন শাপলা চত্তর থেকে খাগড়াপুরে, মহালছড়ি উপজেলা টার্মিনাল এলাকা হতে জিরোমাইলে স্থানানন্তর করা হয়। শহরের গত বুধবার স›দ্ধ্যায় হঠাৎ করে খাগড়াছড়ি টমটম(ব্যাটারী চালিত) মালিক ও চালক সমিতি’র ভাড়া বৃদ্ধি’র দাবিতে শাপলা চত্বর এলাকায় শত শত যাত্রীবাহী গাড়ীকে আটকিয়ে ইদগাহ মাঠে জোর পুর্ব্বক দোকানো ফলে নানা বিরম্ভনা পড়তে হয়েছে । এ নিয়ে স›দ্ধ্যায় মেয়র সাথে বৈঠক হলেও কোন সিদ্ধান্ত পৌছতে পারেনি । গত রবিবার ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা এলাকায় খাগড়াছড়ি-পানছড়ি আন্তঃ প্রধান সড়কে বাস মালিক সমিতির শ্রমিক ও  সিএনজি সমিতির সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষে  উভয় পরে ১০জন আহত হয়েছিল। ঘটনার প্রেেিত উভয় সমিতি’র উদ্ভব সমস্যাটি সমধানে সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত খাগড়াছড়ি-পানছড়ি সড়কে অনির্দিষ্ট কালের জন্য ব›দ্ধ থাকবে বলে জানা গেছে । যাত্রীবাস চলাচল ব›দ্ধ থাকায় সাধারন যাত্রী, স্কুল পড়–য়া ছাত্র-ছাত্রী, অফিস-আদালত যাওয়া ও ব্যবসায়ীরা চরম বিপাকে পড়েছে । স্কুল-কলেজ ছাত্র/ছাত্রীদের  অটো-টেক্্রী মাহিন্দ্রা ও মটর সাইকেলের চলাচল করে কিছু কিছু এলাকায় হাড্ডা-হাড্ডি পর্যন্ত হতে হয়েছে। মংগলবার দুপুরে জেলা প্রশাসক মোঃ মাসুদ করিম আহবানে উভয় পকে নিয়ে জরুরী সভায় পরিবহন চলাচলের সিদ্ধান্ত হলেও সেটি তোয়াকা না করে বাস মালিক সমিতি ব›দ্ধ করে দেওয়ায় সাধারন যাত্রীরা পড়েছে মহাবিপাকে ।
এ দিকে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিবহন মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব কেএম ইসমাইল জানান, যাত্রীবাহী বাস চলাচল ব›দ্ধ থাকার বিষয়টি গাড়ী তেল ও ভাড়া না পৌছানোর কারনে মূলতঃ মালিকরা ব›দ্ধ রেখেছে, এটি কোন পরিবহন ধর্মঘট বলা যাবেনা। এতে অন্যান্যদের যোগাযোগ করতে বলা হলে মোবাইলে কোন সদুউত্তর সংযোগ পাওয়া যায়নি ।
খাগড়াছড়ি পরিবহন মালিক গ্র“পের সাধারন সম্পাদক এসএম শফি জানিয়েছেন, গাড়ী চালিয়ে পোষাতে না পারায় মালিকরা গাড়ী না চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এটি মালিক সমিতির সিদ্ধান্ত নয়।
জানা যায়, গত রবিবার সাড়ে বারটার দিকে পৌরকর অনাদায়ের কারনে খাগড়াছড়ি পৌরসভা কর্তৃপ বেশ কয়েকটি সিএনজি  আটক করে রাখে। এর প্রতিবাদে সিএনজি মালিক সমিতি হঠাৎ করেই পানছড়ি-খাগড়াছড়ি সড়কে অবরোধের ডাক দেয়। ইসলামীয়া সিনিয়র মাদ্রাসা এলাকায়  খাগড়াছড়ি-পানছড়ি সড়কের ব্রীজে পাথর ফেলে বাস ও জীপ গাড়ী চলাচলে বাধা প্রয়োগ করায় উভয় পরে মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় উভয়পরে আহতরা হলেন আলী হোসেন,শাহআলম,অজয় ত্রিপুরা,নির্জন চাকমা,মোঃ লিটন,শুকুর আলী,রুবেল হোসেন। আহতদের মধ্যে দুইজনকে আশংকাজনক অবস্থায় খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে আনা হয়েছে এবং অন্যান্যরা  পানছড়ি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরেই বাস মালিক সমিতি পক্ষ হতে মাহেন্দ্র, সিএনজি ও মটর সাইকেলে আন্ত:জেলা সড়কে যাত্রী পরিবহন বন্ধের দাবী জানিয়ে আসছে। জেলার পানছড়ি উপজেলায় গত রবিবার বিকেল সাড়ে তিনটায় ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা এলাকায় খাগড়াছড়ি-পানছড়ি আন্তঃ প্রধান সড়কে বাস মালিক সমিতির শ্রমিক ও  সিএনজি সমিতির সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষে  উভয় পরে ১০জন আহত হয়েছে।
পানছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোঃ আলমগীর হোসেন জানান, প্রশাসনের জরুরী সভায় সি›দ্ধান্ত মোতাবেক যাত্রীবাহী বাস চলাচল স্বাভাবিক থাকার কথা ছিল । কিন্তু খাগড়াছড়ি-পানছড়ি প্রধান সড়কে যাত্রীবাহি বাস চলাচল আংশিক বন্ধ থাকার বিষয়টি সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তবে এলাকার নিরাপত্তা বাহিনী তৎপরতা জোরদার করা হয়েছে ।
দীঘিনালা থনার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোঃ শাহাদাত হোসেন টিতো জানান, খাগড়াছড়ি মালিক সমিতি’র যাত্রীবাহী বাস ব›দ্ধ রাখায় বাঘাইছড়ি-মারিশ্যা-লংগদু যাত্রীরা হাল্কা যানে চলাচল করতে হচ্ছে । যার ফলে অনেক যাত্রীরা বিরম্ভনা শিকার হতে হচ্ছে ।
অপরদিকে আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল পূর্বের স্থানে পূনর্বহাল করে ছাত্র-ছাত্রীসহ যাতায়াত পরিবাহন সাধারণ জনগণের দূর্ভোগ কমানোর দাবিতে খাগড়াছড়ি জেলা সদরের বিভিন্ন শিা প্রতিষ্ঠানের শিার্থীরা মানববন্ধন ও বিােভ মিছিল মাধ্যমে অবিলম্বে ছাত্র-ছাত্রী  তথা এলাকার সর্বস্তরের জনগণের দূর্ভোগ নিরসনের দাবি জানান এবং প্রশাসনকে এসব সমস্যা  দ্রুত সমাধানের জন্য ৩৬ ঘন্টার সময়সীমা বেধে দেন। এর  মধ্যে দাবি পূরণ না হলে আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর স্কুল কলেজগুলোতে ধর্মঘট কর্মসূচীর হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে সরকারি নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে অবাধে মাছ শিকার

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) ঃ নেত্রকোণার মদনে তিয়শ্রী ইউনিয়নের তিয়শ্রী বাজারের পাশে ...

মদনে অবৈধভাবে চলছে মাছ শিকারের মহোৎসব

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) : নেত্রকোণা মদন উপজেলার মাঘান ইউনিয়নের নয়াপাড়া ও ...