ব্রেকিং নিউজ
Home | সারা দেশ | ক্ষুদে অভিনয় প্রতিভা কী গ্রামেই থাকবে ?

ক্ষুদে অভিনয় প্রতিভা কী গ্রামেই থাকবে ?

এম নজরুল ইসলাম : সিনেমার চরিত্র বাস্তব হতে পারে কি? চরিত্রকে বাস্তব করে তুলতে পারঙ্গম নির্মাতাদের অনেকেরই ভাষ্য হচ্ছে, অনেক শিশুশিল্পীরা অনায়াসে একটি চরিত্রকে করে তুলতে পারে জীবন্ত। সহজেই তারা অতিক্রম করে যায় বাঘা বাঘা তারকাদেরও। শিশুশিল্পীদের রাগ, ক্ষোভ, হতাশা, আনন্দ, ভালোবাসা, এ্যাডভেঞ্চার, এ্যাকশন সাধারণ দর্শকদের যতটা মুগ্ধ করে বড় অভিনেতারাও এতটা করতে পারে না। এমন অনেক সিনেমা আছে যেগুলো শুধুমাত্র শিশুদের অসাধারণ অভিনয়ের কল্যাণেই ইতিহাসে জায়গা করে নিয়েছে।
নড়াইলের ক্ষুদে প্রতিভা মেহেদী হাসান তার গ্রাম সহ আশপাশের এলাকায় কিংখান, সুপারস্টার, ডন, নায়ক, অভিনয় রাজা সহ ভিন্ন ভিন্ন নাম খ্যাতি লোকমুখে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়েছে। গ্রামের এই ক্ষুদে প্রতিভা চায় সিনেমায় অভিনয় সুযোগ। প্রশ্ন হলো- বিষয়টি চলচিত্র পরিচালকদের নজরে আসবে তো ?
নাটক, বিজ্ঞাপন কিংবা সিনেমা, সব মাধ্যমেই শিশুশিল্পীদের ভূমিকা প্রশংসনীয়। অনেক ক্ষেত্রে শিশুশিল্পীদের ঘিরেই নির্মিত হয়ে থাকে বিনোদনের এসব শিল্প আখ্যান। তাদের প্রাণবন্ত অভিনয় অনেকদিন পর্যন্ত দর্শকদের মনে দাগ কাটে। একসময়ের অনেক শিশুশিল্পী অভিনয়ের দাপটে বড় হয়েও দর্শকমহলে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। দেখিয়ে চলেছেন নিজস্ব অভিনয় প্রতিভা। আবার সময়ের সাথে সাথে সেসব কচিমুখ এখন অনেকটা পরিণত হয়েছেন। অনেকে মিডিয়া ছেড়ে জীবন নির্বাহে অন্য মাধ্যমে যুক্ত হয়েছেন। আবার কেউ কেউ মিডিয়া সংশ্লিষ্ট কোনো না কোনো কাজের সাথেই যুক্ত রয়েছেন। অনেক শিশুশিল্পীই পেয়েছেন আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা। তাদের মধ্যে অন্যতম চার দশক আগে মুক্তি পাওয়া ‘ছুটির ঘণ্টা’র মাস্টার সুমন কিংবা ‘চাচ্চু’ সিনেমার ছোট্ট দীঘি।
নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অভিনয় করে বিনোদন প্রেমিদের মন কেড়েছে ক্ষুদে প্রতিভা মেহেদী। ভিন্ন ভিন্ন ম্যাজিক দেখিয়েও এলাকায় ব্যাপক খ্যাতি অর্জন করেছে।
নায়ক মান্নার মত অভিনয় করতে পারে। প্রত্যন্ত এলাকায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকেন অনেক ক্ষুদে প্রতিভাবান অভিনয় শিল্পী। যারা সুযোগ পেলেই নিজের প্রতিভা প্রকাশ করতে পারেন। নিজের মেধাকে কাজে লাগিয়ে সেই লক্ষ্যে পৌছতে পারেন। দেখতে পান সফলতার মুখও। তেমনি এক প্রতিভাবান  মেহেদী হাসান। মেহেদীর স্বপ্ন ও প্রত্যাশা- সে একজন অভিনেতা হতে চায়। অভিনয় সুযোগের জন্য বিভিন্ন অভিনেতা ও পরিচালকের দরজায় প্রায়শই কড়া নাড়ছে। লোহাগড়া উপজেলার  করফা গ্রামের শেখ আরব আলীর ছোট ছেলে ও ইতনা মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কলেজের ১০ম শ্রেনির ছাত্র ক্ষুদে প্রতিভা মেহেদী।
সূত্রমতে, বগুড়া জেলার নন্দীগ্রাম পৌর শহরের রহমান নগরের রাসেল আহমেদ স্থানীয় নৃত্য প্রশিক্ষক। বয়সে তরুন হলেও অভিনয় দক্ষতায় এলাকায় বেশ প্রশংসনীয়। অভিনয় সুযোগ প্রত্যাশা রয়েছে রাসেলের। চলতি বছরে কয়েকটি সংবাদ মাধ্যমে ক্ষুদে প্রতিভার সংবাদ চোখে পড়ে। চ্যানেল আই ক্ষুদে গানরাজ প্রতিযোগিতায় দেশের মধ্যে সেরা টপ সেভেনে অবস্থা করা বরিশাল বিভাগের প্রতিযোগী আগৈলঝাড়া উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রামের অর্নব রায় অংকন। নিজের দক্ষতা প্রতিভায় পঞ্চগড় জেলার বোদা উপজেলার মেয়ে তিলোত্তমা বিশ্বাস।
পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশেও শিশু সাংবাদিকতার একটা চর্চা শুরু হয়েছে। সেটা অবশ্য প্রথম বিটিভিই সীমিত আকারে প্রচলন করে। এরপর বেসরকারি টেলিভিশন একুশে টিভিতে সাংবাদিক সায়মনড্রিং ‘মুক্তখবর’নামে ছোটদের খবর শুরু করেন। সেখানে শিশুরাই নিউজ পড়াও সংগ্রহ করতো। এখন কিছু কিছু টিভি চ্যানেল ও অনলাইন পোর্টালগুলো ছোটদের সাংবাদিক তৈরির কাজ করে যাচ্ছে। ছোটদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তাদের ভবিষ্যতের জন্য গড়ে তুলছেন। বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের শিশুরা তাদের অধিকার ফিরে পাক। আমরা শুধু মুখে শিশু অধিকারের কথা বলি কিন্তু বাস্তবে কেউই তেমন কিছু করছেনা। গ্রামের ক্ষুদে অভিনয় প্রতিভা অধিকার পাক। এই প্রত্যাশা অভিজ্ঞ মহলের।
সুযোগ পেলেই ওরা পারবে। গ্রামের ক্ষুদে প্রতিভা দেশের ও দশের মুখ উজ্জল করবে। বিষয়টি স্ব-স্ব কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ প্রয়োজন।

লেখক : সাংবাদিক
০১৭৭৪৬১৪৭১৯
হধুৎঁষ.ংহ৩৭@মসধরষ.পড়স

১৬-০৭-২০১৭ইং

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বিলুপ্তীর পথে বাংলার আদি সাংস্কৃতির প্রাচীন ঐতিহ্য যাত্রা

রাজু কুমার দে, নাটোর : প্রতিটি দেশের রয়েছে নিজস্ব ঐতিহ্য সাংস্কৃতি। তেমনি ...

পাবনার সাদুল্লাহপুরে শিক্ষক নিয়োগ সংবাদের প্রতিবাদ ও ইউপি চেয়ারম্যানের বক্তব্য

পাবনা প্রতিনিধি : “শ্রীকোল আমিনা স্মৃতি উচ্চবিদ্যালয় শিক্ষক নিয়োগকে কেন্দ্র করে ১জন ...