ব্রেকিং নিউজ
Home | ব্রেকিং নিউজ | কুড়িগ্রামে কনস্টেবল পদে চাকরি পেলেন ৩৩ জন

কুড়িগ্রামে কনস্টেবল পদে চাকরি পেলেন ৩৩ জন

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামে পুরোপুরি মেধা ও যোগ্যতায় পুলিশ কনস্টেবল পদে নিয়োগ পেলেন ৩৩ জন। নিয়োগ প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করেন জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান ও তার সহকারীরা।

কুড়িগ্রাম পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ প্রক্রিয়ায় বাণিজ্য ঠেকাতে নিয়োগের প্রথম দিন থেকে নিয়োগের বিষয়ে যেকোন ধরনের আর্থিক লেনদেন না করার জন্য সকল অভিভাবকের নিকট প্রচারণা চালানো হয়। কিন্তু পরবর্তীতে চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া যায় যে, কয়েকজন অসাধু পুলিশ সদস্য ও সিভিল স্টাফ এই চক্রের সাথে জড়িত, তখন এই চক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া শুরু করেন জেলা পুলিশ সুপার। তিনি চাকরির জন্য দালালদের দেয়া টাকা উদ্ধার করে ফিরিয়ে দিতে পেরে শান্তি পেয়েছেন। জড়িতদের বিরুদ্ধে যথাযথ বিভাগীয় ব্যবস্থার আওতায় নেয়া হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বলেন, ‘১০৩ টাকায় নয়, মেধা ও যোগ্যতাই হবে নিয়োগের মাপকাঠি। গত দুই সপ্তাহে ধরে আমরা কড়া নজরদারি করে দেখেছি কারা কারা জমি বিক্রি করেছে সে সব তথ্য সংগ্রহ করে যাচাই-বাছাই করার চেষ্টা করেছি এবং কেউ কোনো প্রতারককে টাকা দিয়েছে কিনা সেগুলোও বিস্তারিত দেখেছি। আমি বিশ্বাস করি, এবার সুযোগ পাওয়া ছেলে-মেয়েরা কর্মজীবনে আমাদের এই প্রচেষ্টার মূল্যায়ন করবে।’

প্রসঙ্গত, ২৩ জুন কুড়িগ্রামে যোগ দিয়ে পরের দিন মিডিয়া কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন পুলিশের এই কর্মকতা। তখন হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, কুড়িগ্রাম জেলাকে মাদক, সন্ত্রাস ও জুয়াকে জিরো টলারেন্সে আনার ঘোষণা দিচ্ছি। সেই সঙ্গে পুলিশে নারী ও পুরুষ কনস্টেবল নিয়োগে মেধা ও যোগ্যতাকে প্রাধান্য দিয়ে কোন অর্থনৈতিক লেনদেনকে প্রশ্রয় দেয়া হবে না। পুলিশ সদস্য নিয়োগে কেউ টাকা-পয়সা নিলেই তার হাতে ‘হাতকড়া’ পরানো হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

আগুনে দগ্ধ একই পরিবারের আটজনের মধ্যে আরও একজনের মৃত্যু

স্টাফ রির্পোটার : নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন সাইনবোর্ড এলাকায় আগুনে দগ্ধ একই পরিবারের ...

জি কে শামীমের কোম্পানির সঙ্গে পাঁচ প্রকল্পের চুক্তি বাতিল গণপূর্ত অধিদপ্তরের

স্টাফ রির্পোটার : অবৈধ সম্পদ, মাদক ও অস্ত্র মামলায় কারাগারে থাকা যুবলীগ ...