ব্রেকিং নিউজ
Home | সারা দেশ | কালিয়াকৈরে অপহৃত ছয় মাসের শিশু সিরাজগঞ্জ থেকে উদ্ধার গ্রেফতার এক

কালিয়াকৈরে অপহৃত ছয় মাসের শিশু সিরাজগঞ্জ থেকে উদ্ধার গ্রেফতার এক

হুমায়ুন কবির,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি।
গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার উত্তর দাড়িয়াপুর এলাকা থেকে অপহৃত সোমাইয়া আক্তার (৬ মাস) নামের এক শিশুকে সোমবার রাতে পুলিশ সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলা সদর থেকে উদ্ধার করেছে। পুলিশ অপহরণের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে লাভনী আক্তার (২০) নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে। তবে ওই নারীর বিরুদ্ধে ইব্রাহিম নাম ধারণ করে পুরুষ সেজে মানুষের সাথে প্রতারণা করার একাধিক অভিযোগ রয়েছে। তবে পুলিশ জানায়, ওই নারী লাভনী আক্তার ৯মাসের অন্তঃসত্ত্বা রয়েছে। লাভনী আক্তার যে কোন মুর্হুতে সন্তান প্রসব করার সম্ভবনা থাকায় পুলিশ মঙ্গলবার সকালে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে। গ্রেফতারকৃত ওই নারী সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর থানার মাইজগ্রাম এলাকার রজব আলী শেখের নয় মেয়ের মধ্যে আট নাম্বার মেয়ে।পুলিশ ও অপহৃতের পরিবার জানায়. গত রোববার সকালে উপজেলার দাড়িয়াপুর গ্রামের ভাড়া বাড়ী থেকে লাভনী আক্তার সাদেকুল ইসলামের মেয়ে সোমাইয়া আক্তারকে অপহরন করে সিরাজগঞ্জ নিয়ে যায়। ওই সময় লাভনী আক্তার ওই এলাকার কতিপয় যুবকের কাছে অপহৃত মেয়েটিকে জিম্মায় রাখে। ওই সময় যুবকরা তাকে সোমাইয়ার মা আদুরী খাতুনের মোবাইল নাম্বারে ফোন করে ১লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে। অপহৃত সোমাইয়ার মা আদুরি খাতুন রোববার রাতেই কালিয়াকৈর থানায় একটি অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ ওই অভিযোগের সূত্রধরে মোবাইল ট্যাকিং এর মাধ্যমে সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার পাকার মোড় নামক এলাকার মরিয়ম খাতুন নামের এক নারীর বাসা থেকে অপহৃত শিশুকে উদ্ধার করেন। অপহরণের অভিযোগে পুলিশ লাভনী আক্তারকে গ্রেফতার করেন।গ্রেফতারকৃত লাভনী পুলিশের কাছে ইব্রাহিম নামে এবং নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা বলে পরিচয় দিলে পুলিশের সন্দেহ হয়। পরে থানা পুলিশ উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে লাভনীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করিয়ে নিশ্চিত হয় যে, লাভনী পুরুষ নয় নারী। উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের চিকিৎসকরা পুলিশের কাছে লাভনী আক্তার নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা রয়েছে বলে জানান।গ্রেফতারকৃত অপহরণকারী লাভনী আক্তার জানায়, সে সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর থানার মাইজগ্রাম এলাকার রজব আলী শেখ এর নয় বোনের মধ্যে আট নম্বার বোন। তার বয়স যখন ১৪ বছর তখন লাভনী স্বপ্নে নারী থেকে পুরুষে রুপান্তিত হয়। ওই সময়ের পর থেকে ইব্রাহিম নাম ধারণ করে পুুরুষের পোশাক পড়ে বেড়াতো। ইতিমধ্যে লাভনী প্রথমে সালেহা আক্তার ও পরে বৃষ্টি আক্তার নামের দুই নারীকে বিয়ে করে সংসার করে। এর কয়েক বছর পরে আবার মেয়ে রুপান্তরিত হলে তার গ্রামের পাশের বাড়ির আমিনুল ইসলামের সাথে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে উঠে। সেই থেকে লাভনী বর্তমানে নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে বলেও জানায়।পুলিশের এএসঅই ইমরান হোসেন জানান, আমি লাভনীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে সেখানকার চিকিৎসক জানিয়েছেন এই নারীর যে কোন মুর্হুতে বাচ্ছা প্রসব হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। তবে সে রাজমিস্ত্রীর সহকারী হিসেবে কাজ করতো। এর পর থেকে সে ছেলে হিসেবেই এলাকার সকল মানুষের মাঝে পরিচিতি পায়। কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, বিভিন্ন ভাবে খোজ নিয়ে দেখা গেছে সে পুরুষ হওয়ার পর দুটি বিয়ে করেছেন। পরে আবার মেয়ে হলো কিভাবে বিষয়টি সন্দেহজনক। তবে সে অপহরণের সাথে জড়িত রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বাগেরহাটে মৎস্য কর্মকর্তার উদ্যোগে মাছের পোনা অবমুক্ত করণ

বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাটে সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার দপ্তরের উদ্যেগে উন্মুক্ত জলাশয়ে ...

গোপালগঞ্জে বাস-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ১

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে বাস ও মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে  ইয়াছিন (২৮) এক যুবক ...