Home | অর্থনীতি | ব্যবসা ও বাণিজ্য | কক্সবাজারে তৈরি হচ্ছে বর্জ্য থেকে জৈবসার উৎপাদন কারখানা

কক্সবাজারে তৈরি হচ্ছে বর্জ্য থেকে জৈবসার উৎপাদন কারখানা

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, কক্সবাজার : কক্সবাজারের মিঠাছড়িতে প্রায় ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে গড়ে তোলা হচ্ছে বর্জ্য থেকে জৈবসার উৎপাদন কারখানা। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বর্জ্য থেকে জৈবসার উৎপাদনে সিডিএম প্রকল্পের দলিল হস্তান্তর ও চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। ইতোমধ্যে কক্সবাজার পৌরসভার সম্মেলন কক্ষে পৌরসভা ও পরিবেশ অধিদপ্তরের মধ্যকার চুক্তি সম্পাদন হয়েছে। এতে প্রথম পক্ষে মেয়র মুজিবুর রহমান দ্বিতীয় পক্ষে প্রকল্প পরিচালক আবুল কালাম আজাদ স্বাক্ষর করেন ।
কক্সবাজার পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান বলেন, “কক্সবাজার পৌরসভা থেকে প্রতি সপ্তাহে নিয়মিত প্রায় ৫শ’ টন বর্জ্য সরানো হয়। আর এসব বর্জ্য থেকে এখন সার উৎপাদনের উদ্যোগ নিয়েছে বর্তমান সরকার। এতে করে বর্জ্য যেমন দ্রুত অপসারণ হবে তেমনি অপসারিত সেইসব বর্জ্যকে জৈবসারে রূপান্তর করা হবে। এটি নিঃসন্দেহে কক্সবাজারবাসীর জন্য সুখবর নয় শুধু বড় প্রাপ্তিও।
তিনি বলেন, ১০ কোটি টাকা ব্যায়ে বাস্তবায়নাধিন এমন উদ্যোগের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুন্দর মানসিকতাকে ধন্যবাদ জানাতে হয়। কারন কক্সবাজারকে পরিচ্ছন্ন ও বিশ^মানের পর্যটন নগরী গড়তে প্রতিনিয়ত স্বপ্ন দেখেন সরকার প্রধান। তাঁর স্বপ্ন দ্রুত বাস্তবায়ন হবে।”
প্রকল্প পরিচালক আবুল কালাম আজাদ বলেন,“ কক্সবাজার পৌর এলাকার বর্জ্য থেকে প্রতিদিন ১০টন করে জৈবসার উৎপাদন হবে। রামুর মিঠাছড়িতে বাস্তবায়নাধিন ব্যতিক্রমী এ প্রকল্পের জন্য বিশেষ করে মেয়র মুজিবুর রহমানকেই ধন্যবাদ জানান।”
তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে দ্রুত সময়ের মধ্যে আমরা এ প্রকল্পটি বাস্তবায়নপূর্বক বর্জ্য ব্যবস্থাপনার সুফল ভোগ করতে পারবো।”
চুক্তি সম্পাদন অনুষ্ঠানে কক্সবাজার পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সাইফুল আশ্রাব, নারী কাউন্সিলর নাছিমা আকতার বকুল, কাউন্সিলর দিদারুল আলম, কক্সবাজার পৌরসভার সচিব রাসেল চৌধুরী, নির্বাহী প্রকৌশলী নুরুল আলম, সহকারী প্রকৌশলী সিরাজুল কালাম বাবুল, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. খোরশেদ আলম ও প্রকল্প বাস্তবায়ন প্রতিষ্ঠান সেবক এগ্রোবেট লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক খালেদ আমিনসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
প্রসংগত উল্লেখ্য, প্রায় ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে এই প্রকল্পটি দেশের চারটি পৌরসভায় বাস্তবায়ন হচ্ছে। এরমধ্যে কক্সবাজারের মিঠাছড়ির প্রকল্পও একটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করার লক্ষ্যে প্রচারনা চালাচ্ছে চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগ

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন কে সামনে রেখে আওয়ামীলীগ সরকারের ...

সুনামগঞ্জ-৫ আসনে চমক নিয়ে আসতে পারেন রুহুল আমিন

ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জ-৫ আসনে চমক নিয়ে আসছেন সম্ভাব্য সংসদ সদস্য ...