Home | জাতীয় | এবার ছাত্রী লাঞ্ছনার ঘটনায় চারটি বাস আটক করল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

এবার ছাত্রী লাঞ্ছনার ঘটনায় চারটি বাস আটক করল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

স্টাফ রিপোর্টার : উত্তরা ইউনিভার্সিটির পর এবার বাসে ছাত্রী লাঞ্ছনার ঘটনায় রাস্তা থেকে চারটি বাস আটক করল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। উত্তরা ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা আটক করেছিল তুরাগ পরিবহনের ৫০টিরও বেশি বাস। আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আটক করল ট্রাস্ট পরিবহনের চারটি বাস।

রবিবার শাহবাগ থানা পুলিশের সহযোগিতায় বাসগুলো আটকের পর একটি শাহবাগ থানায় অপর তিনটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মল চত্বরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যলয়ের ছাত্র রিফাতুল হক শাওন ঢাকাটাইমসকে জানান, গত ১৭ মে বিকাল পাঁচটার সময়ে রাজধানীর কারওয়ান বাজার থেকে ক্যান্টনমেন্ট যাওয়ার পথে চলন্ত বাসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিনান্স বিভাগের এক নারী শিক্ষার্থীকে হয়রানি করেন বাসের চালকের সহকারী।

‘ট্রাস্ট বাসের চালকের সহকারী প্রথমে ওই আপুকে যৌন হেনস্থার চেষ্টা করে। এমনকি তার সাথে সাথে অশালীন আচরণ করে। এ সময় আমি প্রতিবাদ জানালে বাসের একজন মাত্র লোক এগিয়ে আসে, বাকি কেউ আমার সহযোগিতায় এগিয়ে আসল না। এক সময় ওই বাসের চালকের সহকারী আমাকে হুমকি দিয়ে বলে, ‘কী করবি তুই কর’!’

শাওন বলেন, ‘ওই আপুর ভাই আইসিউতে ভর্তি থাকায় তাকে দ্রুত হাসপাতালে যেতে হবে বলে তখন কোন প্রতিবাদ না জানিয়ে দ্রুত চলে আসি। পরে আজ আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি।’

রাজধানীতে সম্প্রতি বেশ কিছু বাসে মেয়েরা যৌন হয়রানিসহ ধর্ষণ চেষ্টার শিকার হয়েছেন। এসব নারীদের বেশির ভাগই স্কুল, কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী।

এপ্রিলের শেষ দিকে রাজধানীর উত্তরা ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের প্রতিরোধের মুখে দুই দিন বন্ধ থাকে তুরাগ পরিবহন। ছাত্ররা ৫০টিরও বেশি বাস আটক করে চাবি নিয়ে যাওয়ার পর এক পর্যায়ে রাস্তায় এই পরিবহনের চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে অভিযুক্ত বাস চালক ও তার দুই সহকারী গ্রেপ্তার হলে ছাত্ররা আটক হওয়া বাসগুলো ছেড়ে দেয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শাওন বলেন, ‘আমরা ট্রাস্ট এর চারটি বাস আটকে রাখার পরে মালিক পক্ষের লোকজন শাহবাগ থানায় এসেছে। তারা কথা বলছে দেখা যাক কী হয়। তবে আমরা দ্রুত অভিযুক্ত বাসের চালকের সহকারীর বিচার দাবি করব।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল হাসান ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্রীকে ইভটিজিং করেছে বলে চারটি বাস আটক করেছে শিক্ষার্থীরা। প্রক্টর তাদেরকে বলেছেন ইভটিজিংয়ের শিকার ওই ছাত্রীকে নিয়ে তাদের অফিসে যেতে। ওই ছাত্রীকে নিয়ে প্রক্টরের অফিসে গেলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত

দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনার পর যথাযোগ্য মর্যাদা, ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও আনন্দ-উচ্ছ্বাসের ...

স্পেন-পর্তুগাল ম্যাচ ড্র : রোনালদোর হ্যাটট্রিক

রাশিয়া বিশ্বকাপের নিজেদের প্রথম ম্যাচ ড্র করেছে স্পেন ও পর্তুগাল।উত্তেজনায় ঠাসা এই ...