Home | ফটো সংবাদ | এটি কোনো সভ্য দেশের সংবিধান হতে পারে না :এম কে আনোয়ার

এটি কোনো সভ্য দেশের সংবিধান হতে পারে না :এম কে আনোয়ার

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশের বর্তমান সংবিধান কোনো সভ্য দেশের সংবিধান হতে পারে না বলে দাবি করে জনগণের নির্বাচিত সরকার ক্ষমতায় আসলে তারা ছেঁড়া ন্যাকড়ার মতো সংবিধানকে ছুড়ে ফেলে দেবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম কে আনোয়ার।সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৩তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী কৃষক দল এ আলোচনা সভার আয়োজন করে। উল্লেখ্য, আগামী ৩০ মে জিয়াউর রহমানের ৩৩তম শাহাদাতবার্ষিকী। ১৯৮১ সালের এই দিনে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে একদল বিপথগামী সেনাসদস্যের গুলিতে নিহত হন তিনি। দেশবাসী গত ৫ জানুয়ারির সংসদ নির্বাচন বর্জন করেছে বলে দাবি করে এম কে আনোয়ার বলেন, ‘জনগণের ভোটে নির্বাচিত না হওয়া সত্ত্বে শেখ হাসিনা জাপানে গিয়ে নিজেকে নির্বাচিত সরকারের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দাবি করেছেন এবং বলেছেন, বাংলাদেশের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষায় তার সরকার অঙ্গীকারাবদ্ধ। অথচ, সংবিধানে পঞ্চদশ সংশোধনীর মাধ্যমে জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করা হয়েছে। তাই এটি কোনো সভ্য দেশের সংবিধান হতে পারে না।’ তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের জনগণ বর্তমান সংবিধানকে মানবে না, মানতে পারে না। তাই ভবিষ্যতে জনগণের নির্বাচিত সরকার ক্ষমতায় আসলে তারা সংবিধানকে ছেড়া ন্যাকড়ার মতো ছুড়ে ফেলে দেবে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, ‘সরকারের একটি গোষ্ঠী দেশের সম্পদ লুণ্ঠন করছে। আর সেই লুণ্ঠিত সম্পদ এবং ক্ষমতার ভাগাভাগি নিয়ে ক্ষমতাসীনদের মধ্যে কুকুরের লড়াই শুরু হয়েছে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের লোকজন সারা দেশে বিভিন্ন অপকর্ম করছে, নিজেরা নিজেরা খুনোখুনি করে মানুষ হত্যা করছে। অথচ তার দায় বিএনপির ওপর চাপাচ্ছে তারা।’ দেশের অবস্থা তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘প্রশাসনসহ সবখানেই দলীয়করণ করা হচ্ছে। মানুষ এখন আদালতে গিয়েও ন্যায় বিচার পায় না। এভাবে দেশ চলতে পারে না। এ অবস্থা থেকে উত্তোরণের একমাত্র উপায় হচ্ছে- সংগ্রাম-সংগ্রাম-সংগ্রাম এবং আন্দোলন-আন্দোলন-আন্দোলন। তাই আন্দোলনের মাধ্যমেই এই ফ্যাসিস্ট সরকারকে বিদায় করে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে।’ বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান দুদুর সভাপতিত্বে এবং কৃষক দলের সহ-দফতর সম্পাদক এস কে সাদীর পরিচালনায় সভায় যুবদল সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ কৃষক দলের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মঙ্গলবার নয়, মোস্তাফিজ দেশে আসছেন ৩ মে

স্পোর্টস ডেস্ক:  ভারতীয় মিডিয়ায় গত দু’দিন বেশ গুঞ্জন। গুরুত্বসহকারে সংবাদ চাপিয়েছে, আইসিসি ...

ব্যবসায়ীদের জন্য নতুন ভ্যাট আইন মাচ বেটার : সালমান

স্টাফ রিপোর্টার :  বড় ব্যবসায়ীদের জন্য নতুন ভ্যাট আইন আগের ভ্যাট আইনের চেয়ে ...