ব্রেকিং নিউজ
Home | আন্তর্জাতিক | ইউ টার্ন’ নিয়েছেন মালদ্বীপের সুপ্রিম কোর্টের তিন বিচারক

ইউ টার্ন’ নিয়েছেন মালদ্বীপের সুপ্রিম কোর্টের তিন বিচারক

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক: ইউ টার্ন’ নিয়েছেন মালদ্বীপের সুপ্রিম কোর্টের তিন বিচারক। গতাকাল মঙ্গলবার দুই বিচারককে গ্রেপ্তারের কয়েক ঘন্টার মধ্যে নয় রাজনৈতিক বন্দীদের মুক্তি দেয়ার রায় প্রত্যাহার করে নিয়েছেন তারা।

বুধবার এনডিটিভির এক খবরে বলা হয়, ১ ফেব্রুয়ারি সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারক সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহামেদ নাশিদ এবং বিরোধী দলের ১২ এমপিকে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে বিচার করে কারাদণ্ড দেয়ার ঘটনাকে ‘অসাংবিধানিক ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত’ বর্ণনা করে তাদের মুক্তি দেয়ার নির্দেশ দেন। একইসঙ্গে ওই এমপিদের সংসদ সদস্যপদও বহাল ঘোষণা করেন তারা।

আদালতের ওই রায়ের পর মালদিভিয়ান ডেমোক্রেটিক পার্টি (এমডিপি) নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোট মালদ্বীপের ৮৫ সদস্যের পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে যায়।

সিডেন্ট আব্দুল্লাহ ইয়ামিন সুপ্রিম কোর্টের আদেশ মানবেন না বলে জানিয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য পার্লামেন্টের কার্যক্রম স্থগিত করে দেন। কারাদণ্ড পাওয়া ১২ এমপির মধ্যে নয় জন কারাভোগ করছেন। এছাড়া, স্বেচ্ছা নির্বাসনে থাকা আব্দুল্লাহ সিনান ও ইলহাম আহমেদ রবিবার দেশে ফেরার পর বিমানবন্দর থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

ইয়ামিন মিত্রদের আশঙ্কা ছিল, সুপ্রিম কোর্ট প্রেসিডেন্টকে গ্রেপ্তার বা অভিশংসনের আদেশ দিতে পারে।

মালদ্বীপের সংবিধানের ২৫৩ অনুচ্ছেদে দেয়া ক্ষমতাবলে গত সোমবার আগামী ১৫ দিনের জন্য দেশজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করেন প্রেসিডেন্ট। একই সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীকে গ্রেপ্তার, জনসমাবেশ নিষিদ্ধ করাসহ বিভিন্ন ক্ষমতা দেয়া হয়। জরুরি অবস্থা ঘোষণার পরপরই শুরু হয় ধরপাকড়।

জরুরি অবস্থা জারির কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারক আব্দুল্লাহ সাঈদ এবং অন্য আরেক বিচারপতি আলি হামিদকে গ্রেপ্তার করে। সোমবার রাতেই রাজধানী মালেতে বিরোধী দলের পক্ষ নেয়া সাবেক প্রেসিডেন্ট মামুন আবদুল গাইয়ুমকে গৃহবন্দী করা হয়েছে। আর ঘুষ নেয়ার অভিযোগ তুলে মালদ্বীপের বিচার বিভাগীয় প্রশাসনের প্রধান হাসান সাঈদের বাড়িতে তল্লাশি চালানো হয়।

এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যে সুপ্রিম কোর্টের বাকি বিচারপতিরা আগের আদেশ প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন।

ইয়ামিন বলছেন, তার বিরুদ্ধে অভ্যুত্থানের ষড়যন্ত্রের তদন্ত করতেই জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার টেলিভিশনে প্রচারিত ভাষণে প্রেসিডেন্ট ইয়ামিন বলেন, ‘বিচারকদের বিরুদ্ধে তদন্তের অন্য কোনো পথ না থাকায় আমাকে জরুরি অবস্থা জারি করতে হয়েছে।’

জরুরি অবস্থা জারির ফলে দেশটির সংবিধানে বর্ণিত নাগরিক অধিকারের বেশ কিছু বিধান এখন কার্যকর থাকবে না। নিরাপত্তা বাহিনীও বাড়তি ক্ষমতা ভোগ করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা ১৩৬ যাত্রীর

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : অল্পের জন্য বড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেল এয়ার ইন্ডিয়ার ...

তিতলি তাণ্ডবে ভারতে প্রাণ গেলো ৮ জনের

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের অন্ধ্রপ্রদেশে ঘূর্ণিঝড় তিতলির আঘাতে অন্তত ৮ জনের প্রাণহানি ...