Home | ব্রেকিং নিউজ | আলুটিলা টপে অচাই পাড়া স্কুলের শিক্ষাথীরা পান করছে ২০০ফুট নিচের কুয়ার পানি

আলুটিলা টপে অচাই পাড়া স্কুলের শিক্ষাথীরা পান করছে ২০০ফুট নিচের কুয়ার পানি

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি : পাহাড় ঘেরা সবুজ বনের মাঝ খানে খাগড়াছড়ি শহর থেকে প্রায় ৮ কেলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত আলুটিলার উপরে অচাই পাড়া বেসরকারী প্রা: বিদ্যালয় এক থেকে দেরশত ছাত্র-ছাত্রীর লেখাপড়া করে। তারা সবাই প্রায় ২০০ফুেটরও বেশী নিচে থেকে পাহাড়ের কুপের পানি ফিল্টার করে পান করছে। অচাই ভাষার নামটি ত্রিপুরা ভাষায় রুপান্তর করলে বৈদ্য বা পেীরহিত বুঝায়।

অচাই পাড়া বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা প্রতি দিন ঐ ২০০ফুটের বেশী নিচ থেকে পানি সংগ্রহ করে ( ১ থেকে ২ঘন্টা পরে ঘুলা পানি পরিষ্কার হলে ) পান করে। স্কুলের আশে পাশে আরো তিন চার গ্রামের ১৫০-২০০ ত্রিপুরা সম্প্রদঅয়ের মানুষ বসবাস করে। তারা ও একি পরিস্থীতির স্বীকার। তাদের ঐ কুপের পানিই একমাত্র ভরসা। জন্ম লগ্ন থেকেই কুয়ার পানি পান করে বিভিন্ন পানিবাহীত রোগের সম্মুখীন হতে তাদের এবং বাচ্ছাদের।

এ অচাই পাড়া সহ আরো চেীদ্দখর গ্রাম,সংঘপাড়া গ্রাম,দেওয়ান পাড়া গ্রাম, চার গ্রামের ১৫০-২০০পরিবার ত্রিপুরা সম্প্রদঅয়ের মানুষ খাগড়াছড়ি শহর থেকে প্রায় আট কেলোমিটার দূরে আলুটিলার উপরে মাটিরাঙ্গা উপজেলার অধিনস্ত বসবাস কারি মানুষ। তারা র্প্রতেকেই জুম চাষী এবং এ জুম চাষ করেই চলে তাদের জীবন।

এলাকার কারবারী কিত্তিরজন ত্রিপুরা বলেন, আমাদের এ ৪ গ্রামের মানুষের পানির সমস্যা দীর্ঘদিনের বলতে গেলে যুগ যুগ ধরে এখনো সমাধান হয়নি। আমরা জনপ্রতিনিধিদের কাছে অনেক বার বলেছি কিন্তু কিছ থেকে কিছুু করেনি কেউ। তবে এবার আপনাদের মাধ্যমে আমরা আবারও সরকারের কাছে দাবী জানাই যাতে করে আমাদের,অচাই পাড়া সহ এ চার গ্রামের মানূষের পানির সমস্যা সমাধান হয়। আপনারা আপনাদের পত্রিকায় লেখবেন এ লেখা যদি বর্তমান সরকারের কারো চোখে পরে হয়তোবা উনাদের কারো না কারো দয়া হবে আর আমরা পানি পাবো।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক চাইহ্লাউ মারমা পানির সমস্যা প্রসঙ্গে বলেন, এ কুপের পানি পান করায় (৪-৫) মাস আগে স্কুলের এক শিক্ষাথ্রী পানিবাহীত রোগে মারা যায়। স্কুলের ছাত্র ছাত্রীরা কুপের পানি পান করে বিভিন্ন রোগে আক্তান্ত হচ্ছে। আমরা একটি পানির ফিল্টার এনেছি, তবুও এটা যথেষ্ঠ নয়। অনেক সময় কুপের পানি এতো ঘুলা হয় শিক্ষাথ্রীদের জন্য বিপদ জনক হয়।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও ৪নং পেরাছড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান তপন বিকাশ ত্রিপুরা বলেন,অচাই পাড়া বেসরকারী প্রা:বি: আমার ইউনিয়নে পরেছে। আমাদের ইউনিয়ন পরিষদের বরাদ্দ অনুযাই স্কুলের জন্য যতটুকু সম্ভব তা করে যাচ্ছি। তবে এলাকার মাটি পাথর হওয়ায় নলকুপ বসানো যাচ্ছে না। এ সমস্যা সমাধানে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

নড়াইলে দোলযাত্রা উৎসবে হোলিতে রেঙেছে নারী-পুরুষ

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল : নড়াইলের অলি-গলিতে চলছে হোলি উৎসব। তরুণ-তরুণী, জোয়ান-বৃদ্ধ সবাই ...

২ যাত্রীর পাকস্থলীতে ৩ হাজার ইয়াবা

স্টাফ রির্পোটার : রাজধানীর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইয়াবাসহ ২ যাত্রীকে আটক করেছে ...