ব্রেকিং নিউজ
Home | ফটো সংবাদ | আওয়ামী লীগ নেতারা কে কোথায় ঈদ করবেন

আওয়ামী লীগ নেতারা কে কোথায় ঈদ করবেন

Sek Hasina Eidস্টাফ রিপোর্টার : প্রতি ঈদের ন্যায় এবারের ঈদেও ঢাকায় থাকছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঈদের দিন সকালে তার সরকারি বাসভবন গণভবনে বিদেশি কূটনীতিক, সুপ্রিম কোর্টের বিচারক, আওয়ামী লীগসহ রাজনৈতিক দল ও সংগঠনের নেতাকর্মী এবং সর্বস্তরের জনগণের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। প্রধানমন্ত্রীর ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি নূরে-ই-এলাহী মিনা এ তথ্য জানান।

প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি সরকার দলীয় দলের মন্ত্রীদের মধ্যে অনেকেই ঈদ করবেন রাজধানী ঢাকায়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ঈদ করবেন ঢাকায়। তবে ঈদের পরেই কিশোরগঞ্জের নিজ নির্বাচনী এলাকায় যাবেন।

আওযামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুল লতিফ সিদ্দিকী এবার ঈদ করছেন নিজ নির্বাচনী এলাকা টাঙ্গাঈলে। আর সভাপতিমণ্ডলীর আরেক সদস্য ও ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন ঈদ করবেন ঢাকায় তার নির্বাচনী এলাকায়।

আওয়ামী লীগের শিল্প ও বানিজ্য সম্পাদক ও বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী মুহাম্মদ ফারুখ খান ঢাকায় ঈদ করবেন। যদিও পরের দিনই চলে যাবেন নিজ নির্বচনী এলাকায়। সেখানে নেতা-কর্মী ও এলাকাবাসীর সঙ্গে দেখা করে শনিবার তিনি ঢাকায় আসবেন।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনিও এবার ঈদ করবেন ঢাকায়। আরেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক ঈদ করবেন ঢাকার মোহাম্মদপুরে তার নিজ নির্বাচনী এলাকায়।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী ঈদ করবেন ঢাকায়। তবে তিনি ঈদের পরেই তার নিজ নির্বাচনী এলাকায় যাবেন।

ঈদকে কেন্দ্র করে নেতা-কর্মীদের চাঙ্গা করার পাশাপাশি এলাকার মানুষকের কাছে টানা লক্ষ্যে আওয়ামী লীগের অধিকাংশ নেতারা তাদের নির্বাচনী এলাকা চষে বেড়াচ্ছেন। আগামী নির্বাচনকে টার্গেট করে নেতারা বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নিচ্ছেন।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু ঈদ করবেন তার নিজ নির্বচনী এলাকায়। তবে ঈদের পরেই তিনি ফিরে আসবেন ঢাকায়।

উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তোফায়েল আহমেদ প্রতিবারের মত এবারো তার ভোলার নির্বাচনী এলাকায় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে ঈদ করবেন। ঈদ ও পূজা এক সঙ্গে হওয়ায় একটু বেশি ব্যস্ত উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত। পূজার দিনগুলো তিনি ঢাকায় পার করলেও ঈদ করবেন সুনামগঞ্জে নিজ নির্বাচনী এলাকায়।

উপদেষ্টা পরিষদের অন্য আরেক অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়নও ঈদ করেন নিজ এলাকা ভোলার মানুষের সঙ্গে। ইতিমধ্যেই তিনি সেখানে চলে গেছেন। তবে ঈদের দিন রাতেই ফিরে আসেবন ঢাকায়।

সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম ঈদ করবেন সিরাজগঞ্জের তার নিজ এলাকা কাজিপুরে। ইতিমধ্যে তিনি তার নিজ এলাকায় চলে গেছেন। ঈদ শেষে ১৮-১৯ তারিখে তার তার ঢাকায় ফিরে আসার কথা রয়েছে।

সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরুল্লাহ ঈদ করবেন তার এলাকায়।সেখানে ঈদ উদযাপন শেষে ১৯ অক্টোবর তার ঢাকায় আসার কথা।

এখনো নির্ধারিত না হলেও আওয়ামী যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফের তার নিজ এলাকা কুষ্টিয়ায় ঈদ করার কথা রয়েছে।

এছাড়া আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী ঈদ করবেন দিনাজপুরে,আহমদ হোসেন ঈদ করবেন নেত্রকোনায়,বিএম মোজাম্মেল ও আফম বাহাউদ্দিন নাছিম ঈদ করবেন শরিয়তপুরে। সাংগঠনিক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন জয়পুরহাটে, মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ ঈদ করবেন সিলেটে।

স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. বদিউজ্জামান ভূঁইয়া ডাবলু ঈদ করবেন মুন্সিগঞ্জে। ত্রান ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহাল লাইলী ঈদ করবেন নোয়াখালীতে।

সব মিলিয়ে আওয়ামী লীগের অধিকাংশ নেতারা ঈদ করছেন এলাকায়। যারা এলাকায় ঈদ করতে পারছে না তারা ঈদের আগে ও পরে এলাকায় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে সময় দিচ্ছেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

কাদের মোল্লাকে শহীদ বলায় ‘দৈনিক সংগ্রাম’ পত্রিকার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত

স্টাফ রির্পোটার : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, একাত্তরের মহান ...

আইপিএল নিলামের চূড়ান্ত তালিকায় ৫ বাংলাদেশি ক্রিকেটার

ক্রীড়া ডেস্ক : ২০২০ সালের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) নিলামের চূড়ান্ত তালিকায় ...