Home | আন্তর্জাতিক | ‘আওয়ামী দুর্বৃত্তদের’ ঠেকাতে পাবলিক কমিটি করবে বিএনপি

‘আওয়ামী দুর্বৃত্তদের’ ঠেকাতে পাবলিক কমিটি করবে বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টার, ৪ মার্চ ২০১৩, বিডিটুডে ২৪ ডটকম : আওয়ামী লীগ বিরোধী দলের ওপর নীপিড়নমূলক আচরণ করছে উল্লেখ করে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ বলেছেন, ‘এই মুহূর্তে শুধু হরতালই নয়, আরও কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে। সারা দেশে পাবলিক কমিটি করে এই সরকারের দুর্বৃত্তদের প্রতিহত করা হবে।’

সোমবার সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মির্জা ফখরুলসহ সব নেতার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলার প্রতিবাদে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সব সময় রাজনৈতিক বিরোধী। তাদের নৈতিকতা বলে কিছুই নেই। বিএনপিকে তারা বন্দুকের নলের মাথায় রাখতে চাইছে। পুলিশ র‌্যাব দিয়ে বিএনপির গণতান্ত্রিক আন্দোলকে প্রতিহত করা যাবে না। জনগণের সংগ্রামী শক্তিকে সঙ্গে নিয়েই দুর্বৃত্ত সরকারকে প্রতিহত করা হবে।’

রিজভী আহমেদ অভিযোগ করে বলেন, ‘সরকার বিরোধী দলকে সাংগঠনিকভাবে দুর্বল করতে মিথ্যা মামলা দিচ্ছে। এই মামলা ভিত্তিহীন ও বানোয়াট। বিএনপির নেতাদের ওপর পরিকল্পিত ও নৃশংস আক্রমণের পর তাদের বিরুদ্ধে আবার মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে।’

একাত্তরে গণহত্যাকে ঢাকতে বিএনপি এটিকে গণহত্যা বলছে- আওয়ামী লীগের এমন বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে রিজভী বলেন, ‘এখন যেভাবে হত্যা হচ্ছে সেটা একাত্তরের গণহত্যারই সমতুল্য। জনগণ এটিকে গণহত্যা বলছে এবং আন্তর্জাতিকভাবেও এটিকে গণহত্যা বলা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এ হত্যার প্রতিবাদেই মঙ্গলবার বিএনপি হরতাল ডেকেছে। কিন্তু সরকার এই হরতাল ঠেকাতে পুলিশ দিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি তল্লাশি চালাচ্ছে।’

রিজভী বলেন, ‘ফ্যাসিস্ট সরকার পরিকল্পিত ও নৃশংস আক্রমণ করেই ক্ষান্ত হয়নি। নেতাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়েছে ও গণহত্যার নির্মম খেলায় মেতে ওঠেছে। তাদের এই হামলা মামলা কোথায় গিয়ে ঠেকবে তারা নিজেরাও জানে না। প্রতিটি গণবিক্ষিপ্ত সরকারই এই কৌশল আবলম্বন করে। আমি এসব ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।’

তিনি বলেন, ‘পুলিশ ও আওয়ামী সন্ত্রাসীরা যৌথভাবে সারাদেশে নারকীয় তাণ্ডব চালাচ্ছে। সরকার নিজেরাই পরিকল্পিতভাবে সকল ঘটনা ঘটিয়ে বিরোধীদলের উপর দোষ চাপাচ্ছে। তাদের এই নারকীয় ঘটনাকে আন্তর্জাতিকভাবেও গণহত্যা বলে অবহিত করা হয়েছে।’

একাত্তরের গণহত্যাকে ভোলানোর জন্যই বিএনপি এবং জামায়াত নতুন করে গণহত্যার কথা বলছে বলে সংসদে আলোচনা হচ্ছে- সাংবাদিকরা এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে রিজভী বলেন, ‘একদলীয় সংসদে যা ইচ্ছে তাই বলা যায়। একাত্তরের গণহত্যা ঢাকার জন্য নয়, সমতুল্য গণহত্যা চলছে এখন।’

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সব নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানান রিজভী আহমেদ।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির নেতা মাসুদ আহমেদ তালুকদার, আব্দুস সালাম আজাদ, এবিএম মোশারফ হোসেন, প্রফেসর আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

x

Check Also

অবশেষে বৈঠকে বসছে ভারত ও পাকিস্তান

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : দুই বছর পর সিন্ধুর জল বণ্টন নিয়ে মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) ভারতের সঙ্গে ...

এক শটে বাংলার বাইরে ফেলব ওদের : মমতা

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ভাঙা পা নিয়েই শেষ মুহুর্তের নির্বাচনি প্রচারে মাঠ গরম করছেন ...